সংবাদ শিরোনাম
ব্যস্ত সময় পার করছেন সাভার ও আশুলিয়ার প্রতিমা শিল্পীরা | অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী | পরকীয়া প্রেমিক নাতির পুরুষাঙ্গ কেটে দিলেন দাদি! | মাগুরায় যুবলীগ নেতার পিতার উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন | শিক্ষা দিবসে ইবি ছাত্র ইউনিয়নের র্যালি | আট দিনের আন্দোলনেও সুরাহা মেলে নি বাকৃবি শিক্ষার্থীদের | প্রকল্পের পণ্য কিনতে দাম নির্ধারণে সর্তক হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর | বাকৃবিতে জিটিআইয়ে কর্মকর্তাদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী | নেত্রী পদে থাকতে বলেন থাকব, না বললে থাকব না: কাদের | প্রত্যেক বিভাগীয় শহরে হবে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার হাসপাতাল |
  • আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রোহিঙ্গাদের কারণে বাংলাদেশের প্রকৃতির ক্ষতি হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী

১:০১ অপরাহ্ণ | বুধবার, জুলাই ১০, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- রোহিঙ্গারা যত দ্রুত সম্ভব নিজ দেশে ফিরে যাক জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এদের আমরা আশ্রয় দিয়েছি। মানবিক কারণে আমরা তাদের আশ্রয় দিয়েছি। এর ফলে আমাদের ওই অঞ্চলের প্রাকৃতিক ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে।

বুধবার (১০ জুলাই) সকালে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে ‘গ্লোবাল কনভেনশন অন অ্যাডাপটেশন’র সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা জানান, প্রায় ১১ লাখ মিয়ানমারের রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। তিনি বলেন, ‘১১ লাখ বাস্তুচ্যুত রাখাইন সম্প্রদায়ের মানুষ আমাদের কাঁধে। এদের আমরা আশ্রয় দিয়েছি। এর ফলে আমাদের ওই অঞ্চলের প্রাকৃতিক ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে। পাহাড়-জঙ্গল কেটে বসতি হচ্ছে। ওই এলাকা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যাচ্ছে। মানবিক কারণে আমরা তাদের আশ্রয় দিয়েছে। কিন্তু আমরা চাই তারা যত দ্রুত সম্ভব নিজ দেশে ফিরে যাক।

জলবায়ু পরিবর্তনকে বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, সারাবিশ্ব, বিশেষ করে ছোট ছোট দ্বীপগুলোর জন্য জলবায়ু পরিবর্তনে বিরাট ঝুঁকি রয়েছে। তাই জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবিলায় নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করতে বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

অনুষ্ঠানে জলবায়ু পরিবতর্নের ঝুঁকি মোকাবিলায় কাযর্ক্রম ‌অব্যাহত রাখায় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বের প্রশংসা করেছেন জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব বান কি মুন। তিনি বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবিলায় বাংলাদেশের কার্যক্রম প্রণিধানযোগ্য। তাদের কাছ থেকে আমরাও শিক্ষা নিচ্ছি।’