সংবাদ শিরোনাম
প্রেমপত্র দিতে গিয়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি! | মসজিদের বারান্দায় পড়াশোনা করছেন মুশফিক! | ফেলে দেওয়া নবজাতক শিশুকে ড্রেন থেকে টেনে তুলে প্রাণ বাঁচালো কুকুর | ঠাকুরগাঁওয়ে ফেন্সিডিল সেবনের সময় ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার | পদ্মায় গোসল করতে গিয়ে ভেসে গেল নবদম্পতি! | বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে নারী হত্যার ঘটনায় আটক ৩ | বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে নারী হত্যার ঘটনায় আটক ৩ | ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলার প্রস্তুতি | ব্যক্তি স্বার্থ হাসিলের জন্যই প্রিয়া সাহা মিথ্যাচার করেছেন: পূর্তমন্ত্রী | নবীগঞ্জে কলেজছাত্রীকে উত্যক্ত করার অভিযোগে যুবকের ৬ মাসের কারাদন্ড |
  • আজ ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

একইস্থানে বারবার রেল লাইনচ্যুত, লাইন ও সেতু সংস্কারের নামে লুটপাটের অভিযোগ

১:৩৬ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুলাই ১১, ২০১৯ দেশের খবর, রাজশাহী

ওবায়দুল ইসলাম রবি, রাজশাহী প্রতিনিধি- রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার দীঘকান্দি এলাকায় তেলবাহী ৯টি বগি লাইনচ্যুত হওয়ায় রাজশাহীর সঙ্গে সারাদেশের রেলযোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে রাজশাহী রেলওয়ের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছান।

সকাল ৭টা পর্যন্ত লাইনচ্যুত ৮টি বগির মধ্যে মাত্র দুটি বগি সরানো সম্ভব হয়েছে। অবশিষ্ট বগিগুলো সরানোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। ফলে এখন পর্যন্ত সারা দেশের সঙ্গে রাজশাহীর রেলযোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। উদ্ধারকাজ শেষ করে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হতে দুপুর গড়িয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

গতকাল বুধবার বিকেল ৬ টার দিকে এই ঘটনায় সহকারী প্রকৌশলী আব্দুর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এ বিষয়ে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এদিক খোদ রেলওয়ের কর্মকর্তাদের অভিযোগ, ঘটনার মূল নায়ক পশ্চিম রেলওয়ের বিভাগীয় প্রকৌশলী-২ আরিফুল ইসলাম। রেললাইন সংস্কারের নামে আরিফ ও তার সহযোগীদের লুটপাটেরর কারণেই চারঘাটের একই স্থানে বার বার ট্রেন লাইনচ্যুতের ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার বিকেলে সারদা রেলষ্টেশন পার হয়ে লাইনচ্যুত হয় তেলবাহী ট্রেন। ট্রেনের ৯টি বগি মূল লাইন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। যার কারণে রাজশাহীর সঙ্গে সারাদেশের রেলযোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

এদিকে রাজশাহী রেলওয়ের একাধিক কর্মকর্তা জানান, এই লাইনটি সম্প্রতি কয়েক কোটি টাকা ব্যয় করে সংস্কার করা হয়। কিন্তু সংস্কারের নামে বিপুল টাকা লুটপাট করা হয়। এই লুটপাটের নেতৃত্বে ছিলেন পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের সাবেক প্রধান প্রকৌশলী রমজান আলী। সে তিন বছরে এই অঞ্চলে শুধু লাইন সংস্কারের নামে প্রায় চারশ কোটি টাকা লোপাট হয়। এলটিএমের মাধ্যমে টেন্ডার ছাড়ায় উন্নয়ন করে এ টাকা লোপাট করা হয়। বিষয়টি নিয়ে এখনো তদন্ত করছে দুদক।

রাজশাহী রেলওয়ের সরাঞ্জম শাখা লাইনের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ কেনার নামেও লুটপাটে মেতে ওঠেছে। পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান সরাঞ্জম কর্মকর্তা বেলাল উদ্দিন সরকারের বিরুদ্ধে গত বছরে শুধু এলটিএমের মাধ্যমে অন্তত ২০ কোটি টাকা লোপাট হয়েছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। অতিরিক্ত মূল্য দেখিয়ে এবং প্রয়োজন ছাড়ায় কোন প্রকল্পে টাকা লোপাট করা হয় বলে অভিযোগে উঠেছে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলের লাইন ও সেতু সংস্কারের নামে লুটপাটের অভিযোগ ওঠে আরেক বিভাগীয় প্রকৌশলী-২ আরিফুল ইসলামের বিরুদ্ধে। তবে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ট্রেনের যন্ত্রাংশ কেনাকাটার নামে কোনো অনিয়ম হয়নি। সংশ্লিষ্ট বিভাগের চাহিদা অনুযায়ি যন্ত্রাংশ ক্রয় করা হয়।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে অভিযোগের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি বেলাল উদ্দিন সরকার। অপরদিকে প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম দাবি করেন, তিনি কোনো অনিয়মের সঙ্গে জড়িত নয়।