ডুয়েটে টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের নবীন বরণ ও বিদায় সংবর্ধনা

৭:৫২ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০১৯ শিক্ষাঙ্গন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সময়ের কণ্ঠস্বর:  ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ডুয়েট), গাজীপুর-এর টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের নবীন বরণ ও বিদায় সংবর্ধনা বৃহস্পতিবার (১৮জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে প্রথম পর্বে আনন্দ শোভাযাত্রা ও বৃক্ষরোপন, দ্বিতীয় পর্বে আলোচনা সভা ও সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে নতুনদের বরণ ও বিদায়ী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এতে বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারী সকলেই উপস্থিত ছিলেন।

দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা অনুষ্ঠানে টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মো. আবদুস সাহিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী গোলাম দোস্তগীর গাজী (বীরপ্রতীক), এমপি। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব ইঞ্জি. মো. মোজাফ্ফর হোসেন, এমপি। অনুষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আলাউদ্দিন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের বস্ত্রশিল্প মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দিনদিন আরো উন্নত হচ্ছে। এর ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। তিনি বস্ত্রখাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলকে একযোগে কাজ করার আহবান জানান। এছাড়া নবীন শিক্ষার্থীদেরকে অভিনন্দন জানিয়ে বিদায়ীদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহবানও জানান।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (ছাত্র কল্যাণ) অধ্যাপক ড. মো. নজরুল ইসলাম, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. কামরুজ্জামান, রেজিস্ট্রার (অ. দা.) অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান চৌধুরী, টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. আব্দুল হান্নান, ডুয়েট ছাত্রলীগের সভাপতি মো. তাইবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক বিনয় ব্যানার্জী প্রমূখ। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ডীন, বিভাগীয় প্রধান, পরিচালক, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বিদায়ী শিক্ষার্থীরা স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। এখানে একদিকে যেমন বিদায়ের বাণী ধ্বনিত হয়েছে; ঠিক অন্য দিকে নতুনের আগমনে আনন্দের বার্তা বয়ে এনেছে। অনুষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষক উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আলাউদ্দিন বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতির ক্ষেত্রে তৈরি পোশাক শিল্প বড় ধরনের চালিকা শক্তি। আর এর উত্তরোত্তর উন্নয়নে টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ গুরুত্বপূণ ভূমিকা পালন করছে। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের পোশাক শিল্প ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। এ ইতিহাস দিনদিন আরা উজ্জ্বল হচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। তিনি বিভাগের বিদায়ী শিক্ষার্থীদের সুন্দর ভবিষ্যৎ ও নবাগত শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে সাদরে গ্রহণ করেন। এছাড়া বিভাগে দেওয়া বিদ্যা কাজে লাগিয়ে বিদায়ী শির্ক্ষার্থীরা সেবার মাধ্যমে দেশ ও জাতির কল্যাণে এগিয়ে আসবেন বলে অনুষ্ঠানে অন্যান্য বক্তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ক্রেস্ট ও ফুল দিয়ে ত্রয়োদশ ব্যাচের নবীণ শিক্ষার্থীদের বরণ করে নেওয়া হয় এবং পরে দশম ব্যাচের বিদায়ী শিক্ষার্থীদের বিদায় জানানো হয়।