সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ২৮শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দিলে শেষ রক্ষা হবে না : মির্জা ফখরুল

১১:০১ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০১৯ স্পট লাইট

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: বেগম জিয়াকে মুক্তি না দিলে সরকারের শেষ রক্ষা হবে না বলে জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।এ ছাড়া বিরোধী দলগুলোকে আলোচনায় ডেকে শান্তিপূর্ণ পথ বের করতে সরকারের প্রতি আহ্বানও জানান ফখরুল।

বৃহস্পতিবার বরিশাল বিভাগের উদ্যোগে এক বিভাগীয় সমাবেশে তিনি একথা বলেন।বিএনপির পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি’ শীর্ষক সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয় বরিশাল হেমায়েত উদ্দিন ঈদগাহে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকারকে বলব, খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দিলে আপনাদের শেষ রক্ষা হবে না। অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন।

সরকারের উদ্দেশে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বর্তমান নির্বাচন কমিশন কোনো কমিশনই না। তারা ব্যর্থ। তাই অবিলম্বে এই কমিশন বাতিল করে নিরপেক্ষ ব্যক্তি দিয়ে নির্বাচন কমিশন করতে হবে। আর অবিলম্বে একটি নিরপেক্ষ সরকারে অধীনে নির্বাচন দিয়ে নতুন সংসদ তৈরি করেন। সময় পার হওয়ার আগে এই কাজগুলো করেন। আর বিরোধী দলগুলো ডেকে শান্তিপূর্ণ ও গণতান্ত্রিকভাবে আলোচনা করে একটি রাস্তা বের করুন।’

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমার ভাগ্য আমি পরিবর্তন করব। অন্য কেউ করে দেবে না। এই দেশের মানুষের ভাগ্য দেশের মানুষকেই পরিবর্তন করতে হবে। তাই আপনাদের বলতে এসেছি, আপনারা সবাই চান আন্দোলন হোক। বেগম জিয়াকে বের করে আনতে হবে। কিন্তু সেই আন্দোলন থেকে যেন ফিরে আসতে না হয়। সেই আন্দোলন থেকে যেন পেছনে আসতে না হয়। তাই গ্রামে-গ্রামে যান, মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করেন। আর মানুষকে সঙ্গে নিয়ে রাজপথে আসতে পারলে আমরা অবশ্যই জয়ী হবো।’

সরকারের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘অবিলম্বে এবং কাল বিলম্ব না করে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন। আর তাকে যদি মুক্তি না দেন তাহলে আপনাদেরও রক্ষা হবে না।’

বরিশাল থেকে নতুন আন্দোলনের সূচনা শুরু হলো বলেও জানান ফখরুল। তিনি বলেন, ‘এই আন্দোলনে বিজয় আমাদের সুনিশ্চিত। আর আমরা আমাদের গণতন্ত্র ও স্বাধীনতার জন্য যেকোনো ধরনের ত্যাগ স্বীকার করতে রাজি আছি।’

দেশে হত্যা, গুম ও ধর্ষণের কথা উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আদালতও আজকে নিরাপদ জায়গা নয়। আদালতেও প্রকাশ্যে বিচারকের সামনে খুন করা হচ্ছে! কোথায় যাবেন এবং কার কাছে যাবেন?’

Loading...