উলিপুরে বানভাসিদের কাছে কিস্তির টাকা আদায় করছে এনজিও!

৮:৩৭ অপরাহ্ণ | রবিবার, জুলাই ২১, ২০১৯ রংপুর

খালেক পারভেজ লালু, উলিপুর, (কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃউলিপুরে বানভাসিদের উপর চলছে এনজিওদের কিস্তির টাকায়ে আদায়ে জোড় জুলুম। এ যেন মরার উপর খরার ঘাঁ। এনজিও কর্মীদের ভয়ে আশ্রয় কেন্দ্র ছেড়ে পুরুষরা পালিয়ে বেড়াছে বলে বানভাসিরা অভিযোগ করেন।

গত ২১ জুলাই হাতিয়া অনন্তপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় আশ্রয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেল ব্র্যাক মন্ডলের হাট শাখার মাঠকর্মী জয়শ্রী রানী বানভাসি মানুষের কাছ থেকে জোড় করে লোনের কিস্তির টাকা আদায় করছে। আমাদের পরিচয় পাওয়ার পর তাড়াহুড়া করে ওই মাঠকর্মী শটকে পড়ার জন্য তড়ি ঘড়ি করে নৌকায় চড়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।

এ সময় তার কাছ থেকে জানতে চাওয়া হয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার চিঠি দিয়ে বন্যা চলাকালীন বানভাসিদের কাছ থেকে লোনের কিস্তি আদায় বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। কিন্তু তার পরও কেন আপনী কিস্তি আদায় করছেন জবাবে তিনি বলেন আমরা কোন চিঠি পাইনি। এ কথা শুনে বানভাসিরা চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন আমাদের জীবন বাঁচে না। তার উপর ওরা টাকার জন্য চা^প দিচ্ছে। ওদের ভয়ে অনেক পুরুষ আশ্রয় কেন্দ্র ছেড়ে দিনে পালিয়ে থাকে বলে জানান। বানভাসিরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠলে ওই মাঠকর্মী পালিয়ে যায়। এ সময় লোনি কার্ত্তিক চন্দ্র(৫০), মরিয়ম বেগম(৪০) ও রেহানা (২৮) জানায় ওই মাঠকর্মী তাদের কাছ থেকে জোড় করে কিস্তি আদায় করেছে।

হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বিএম আবুল হোসেন জানান এনজিওদের এ ব্যাপারে চিঠি এবং মৌখিক ভাবে জানানো হলে ও তারা তা মানছে না।

এ ব্যাপারে ব্র্যাক মন্ডরের হাট শাখা ব্যবস্থাপক প্রদিপকুমার রায় বলেন এখন ও চিঠি পাইনি তবে নিবার্হী অফিসারের এ সংক্রান্ত একটি ম্যাসেজ পেয়েছি আর কর্মীরা মাঠে যাবে না বলে জানান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আব্দুল কাদেরের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান এ ব্যাপারে এনজিও গুলোকে সর্ত্তক করে কিস্তি বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নিদের্শ অমান্য করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উলিপুরে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু

খালেক পারভেজ লালু,উলিপুর (কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ উলিপুরে বন্যার পানিতে পড়া বিদ্যুতের তারে জরিয়ে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু । গত ২১ জুলাই সকাল ১১টার দিকে হাতিয়ার কাসারীর ঘাট গ্রামে এ মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ।

জানাগেছে,হাতিয়ার ওই গ্রামের বকুল মিয়ার পুত্র স্কুল ছাত্র পারভেজ (১৫) বিদ্যুতের তার ঠিক করার জন্য পানিতে নামলে বন্যার পানিতে ডুবে থাকা তারে জড়িয়ে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। পরে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে ফোন করে জানালে লাইন বন্ধ করে দেয়ার পরে তাকে মৃত অবস্থায় পানি থেকে তোলা হয়।

এ ব্যাপারে উলিপুর থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে স্কুল ছাত্র মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।