সংবাদ শিরোনাম
বিশ্বজিৎ হত্যার ৭ বছর আজ: দণ্ডিতরা সবাই প্রকাশ্যে , কিন্তু কাউকেই খুঁজে পায় না পুলিশ! | গফরগাঁওয়ে মোটরসাইকেল-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ৩ | ধানের সঠিক মূল্য না পেয়ে এবার আগাম আলু চাষের সিদ্ধান্ত কৃষকদের | এবছরও বেগম রোকেয়ার কবরে ফুল দেওয়ার স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে না! | পটুয়াখালী হানাদার মুক্ত দিবস স্মরণে আলোর মিছিল | টাঙ্গাইলে প্রেমিকার দেয়া এসিডে ঝলসে গেল প্রেমিক | পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় গাছের সাথে বেঁধে ২ শিশু নির্যাতন : গ্রেফতার ২ | হিলিতে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় ট্যাবলেট জব্দ | স্কুলে পরীক্ষা বন্ধ রেখে আ.লীগের সম্মেলনে গেলেন শিক্ষকরা! | প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সালমান-ক্যাটরিনা |
  • আজ ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মিন্নির আবেদন নামঞ্জুর করলো আদালত

৩:২৫ অপরাহ্ণ | সোমবার, জুলাই ২২, ২০১৯ আলোচিত বাংলাদেশ
MINNI

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার তার স্ত্রী ও মামলার প্রধান সাক্ষী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রত্যাহার এবং তার চিকিৎসার আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। সোমবার বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী এ আবেদন নামঞ্জুর করেন।

আদালতের বিচারক মো. সিরাজুল ইসলাম গাজী এজলাসে বসে আবেদনের ব্যাপারে বলেন, মিন্নির জবানবন্দি বাতিলের আবেদন করতে হলে জেলারের কাছে থেকে কাগজপত্র আদালতে আসতে হবে। তাছাড়া মিন্নির চিকিৎসার বিষয়ে পুলিশ ব্যবস্থা নেবে।

এর আগে ১৬৪ ধারায় দেওয়া মিন্নির জবানবন্দি প্রত্যাহারের জন্য তাকে আদালতে তলবের আবেদন করেন তার আইনজীবী ও বরগুনা জেলা বারের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহবুবুল বারি আসলাম।

এ সময় মিন্নি অসুস্থ বলে তাকে উপযুক্ত চিকিৎসা দেয়ার জন্য হাসপাতালে পাঠানোর আবেদন করেন তার আইনজীবী। বিচারক দুটি আবেদনই নামঞ্জুর করেন। এর আগেও ২১ জুলাই মিন্নির জামিন আবেদন করা হয়। সেই আবেদনও খারিজ করে দিয়েছিলেন আদালত।

উল্লেখ্য ২৬ জুন প্রকাশ্য দিবালোকে বরগুনা সরকারি কলেজ রোডে স্ত্রী মিন্নির সামনে কুপিয়ে জখম করা হয় রিফাত শরীফকে। পরে বরিশাল শেরে-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রিফাতের মৃত্যু হয়। হত্যাকাণ্ডের প্রধান অভিযুক্ত নয়ন বন্ড মঙ্গলবার (০২ জুলাই) ভোরে জেলা সদরের বুড়িরচর ইউনিয়নের পুরাকাটা ফেরিঘাট এলাকায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। এরমধ্যে কয়েকজন আসামিও গ্রেফতার হন।

পরে ১৬ জুলাই মঙ্গলবার সকালে বরগুনার মাইঠা এলাকার বাবার বাসা থেকে মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বরগুনার পুলিশ লাইনে নিয়ে আসা হয়। সেখানে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রিফাত হত্যাকাণ্ডে মিন্নির সম্পৃক্ততার প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়ায় ওইদিন রাত ৯টার দিকে মিন্নিকে গ্রেফতার দেখায় পুলিশ।

এ হত্যা মামলায় এখন পর্যন্ত ১৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে মিন্নিসহ ১৩ জন রিফাত হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। এছাড়া এ মামলার দুইজন এখনো রিমান্ডে রয়েছেন।

Loading...