সংবাদ শিরোনাম
১৫ ডিসেম্বর প্রকাশ পাচ্ছে রাজাকারের তালিকা | বড় দিন ও থার্টিফার্স্ট নাইটে উন্মুক্ত স্থানে অনুষ্ঠান নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | গণধর্ষণের মাধ্যমে কি সন্ত্রাস মোকাবিলা করতে হয়? প্রশ্ন গাম্বিয়ার | পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পর এবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ভারত সফর স্থগিত! | নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে বিক্ষোভ, পুলিশের গুলিতে নিহত ৩ | মিয়ানমারের বক্তব্যকে ‘ফ্রড’ বলল গাম্বিয়া | আশুলিয়ায় চেয়ারম্যান সহযোগী গুলিবিদ্ধের ঘটনায় মুল হোতা বাদে ১০জনের বিরুদ্ধে মামলা! | তানোরে ধর্ষণ মামলার আসামীসহ গ্রেফতার- ২ | ডুয়েটে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস’ উয্যাপিত | টাঙ্গাইলে ট্রাক্টরচাপায় শিশুর মৃত্যু |
  • আজ ২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিএনপি ছেড়ে জাতীয় পার্টিতে যোগ দিলেন মঞ্জুর

৬:১৯ অপরাহ্ণ | সোমবার, জুলাই ২২, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- বিএনপির ঢাকা মাহানগর উত্তরের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন জাতীয় পার্টিতে (জাপা) যোগ দিয়েছেন। জাপা চেয়ারম্যানের ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সোমবার (২২ জুলাই) দুপুরে জাপা চেয়ারম্যানের বনানী অফিসে পার্টির নতুন চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদেরের হাতে ফুল দিয়ে নতুন দলে যোগ দেন মঞ্জুর। এ সময় জাপা চেয়ারম্যান তাকে সাদরে গ্রহণ করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা সাবেক রাষ্ট্রদূত মেজর (অবসরপ্রাপ্ত) আশরাফ-উদ-দৌলা, যুগ্ম মহাসচিব হাসিবুল ইসলাম জয়, কেন্দ্রীয় নেতা মাসুদুর রহমান চৌধুরী, অ্যাডভোকেট আবু তৈয়ব, জাকির হোসেন খান প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন ১৯৮৯ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত ঢাকা কলেজ ছাত্র সংসদে নির্বাচিত ক্রীড়া সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। বিএনপিতে শেষ তিনি ঢাকা মহানগর উত্তরের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন।

সৈয়দ মঞ্জুর হোসেনের কাছে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি রাজনীতি করি বিগত ৩৩ বছর। বর্তমানে দেশে আমাদের বিএনপির রাজনীতি করার মতো কোনো অবস্থা নেই। কোনো মিছিল মিটিং ডাকলে সেটি করতে পারি না। আর নিজেদের গ্রুপিংতো আছেই। এসব গ্রুপিং ভালো লাগে না। তাই একটু রিলাক্সে থাকার জন্য এবং গ্রুপিং থেকে মুক্ত থাকার জন্য জাতীয় পার্টিতে এসেছি।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের মহানগর বিএনপি পুরোপুরি বিভক্ত। এটা দুই চার জন লোকের নিয়ন্ত্রণে। আমাদের সভাপতি থাকেন মালয়েশিয়া, সাধারণ সম্পাদক দেশে থেকেও না থাকার মতো। তার কোনো রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড নেই। আমাদের সাথে তার কোনো বনিব না নেই। আর এ অবস্থায় রাজনীতি করার কোনো স্কোপ পাচ্ছি না। নিজেও মামলা-হামলার শিকার। এসব থেকে একটু রিলাক্স পেতেই আমার জাতীয় পার্টিতে আসা। যাতে একটু নিরাপদে থেকে রাজনীতিটা করি। কারণ রাজনীতি করি একটা মহৎ উদ্দেশ্যে, মানুষের সেবা করার জন্য। আগামীতে যেন সেটা করতে পারি।’

Loading...