• আজ ১১ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সুনামগঞ্জে বাবাকে হত্যার দায়ে ছেলের যাবজ্জীবন

৭:২৬ অপরাহ্ণ | বুধবার, জুলাই ৩১, ২০১৯ দেশের খবর, সিলেট

জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি- সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলায় বাবাকে হত্যার দায়ে আব্দুর রশীদ নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে দুই মাসের সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে আদালত।

বুধবার (৩১জুলাই) দুপুরে শুনানি শেষে এই দন্ডাদেশ দেন অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সহকারি পাবলিক প্রসিকিউটর সৈয়দ জিয়াউল ইসলাম এই দন্ডাদেশের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি ও মামলা সূত্রে জানা যায়, ছাতক উপজেলার মঈনপুর গ্রামের বাসিন্দা সহিদ মিয়ার ২০০৯ সালের ২৩ মে ছোট ছেলে রিপন মিয়ার খৎনার জন্যে বাজার থেকে কয়েকটি মোরগ কিনে নিয়ে আসেন। রশীদ বসতঘর থেকে ১টি মোরগ চুরি করে বাজারে বিক্রি করে দেয়। এই ঘটনায় ঐদিন সন্ধ্যায় পিতা সহিদ মিয়া বখাটে ছেলে রশীদকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে তর্কে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে হাতে থাকা লাঠি দিয়ে পিতা সহিদ মিয়ার মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে স্বজরে আঘাত করলে গুরুতর আহত হয়।

পরিবার ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় সহিদ মিয়া সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে সহিদ মিয়ার মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় হত্যার দুইদিন পর ২৫মে ছেলে আব্দুর রশীদকে আসামি করে ছাতক থানায় মামলা দায়ের করেন মা মোছাঃ নুরুন নেছা।

এই ঘটনায় পরবর্তিতে আব্দুর রশীদের বিরুদ্ধে চার্জশীট তৈরী করে। স্বাক্ষ্য গ্রহণ ও দীর্ঘ শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার দুপুরে আব্দুর রশীদকে দোষী সাব্যস্থ করে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেন বিচারক।

এই মামলার বাদী পক্ষের উকিল ছিলেন অ্যাডঃ আবু তাহের মোহাম্মদ রুহুল তুহীন।