সংবাদ শিরোনাম
ঢাকায় কম্বোডিয়ার প্রয়াত রাজার নামে সড়ক | ‘সরকার অনেক সহ্য করেছে আর না, আরও কড়া পদক্ষেপ নেওয়া উচিত’ | বাংলাদেশ বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত বায়ুর দেশ: প্রতিবেদন | দাঙ্গায় রুপ নিচ্ছে দিল্লি, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২০ | বিশ্বের দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় আজও শীর্ষে ঢাকা | পীরগাছায় সড়কে হেলে পড়েছে একাধিক বৈদ্যুতিক খুঁটি, দেখার কেউ নেই | অশান্ত দিল্লিতে কারফিউ: সহিংসতায় নিহত বেড়ে ১৯, আহত ১৫০ | অবৈধ সম্পদ: স্ত্রীসহ ওসির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা | বঙ্গবন্ধুর চিঠি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করতে চান স্বীকৃতি বঞ্চিত মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী | শরীয়তপুরে যানবাহনের ড্রাইভার-হেলপারদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে পুলিশ |
  • আজ ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ধর্ষণে বাধা দেওয়ায় বোনকে সিটি সেন্টার থেকে ফেলে দেয় সৎভাই

১২:১৮ অপরাহ্ণ | শনিবার, আগস্ট ১৭, ২০১৯ অপরাধ

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক:ধর্ষণে বাধা পেয়ে কলেজছাত্রী তানজিনা আক্তার রূপাকে (১৭) গলা টিপে হত্যা করে রাজধানীর মতিঝিলের সিটি সেন্টারের ১৪ তলা থেকে ফেলে হত্যা করেছে সৎভাই যুবায়ের আহম্মেদ সম্রাট।

দোষ স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন সম্রাট।

শুক্রবার মতিঝিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন। গত ১০ আগস্ট এই ঘটনার পর দোষ স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন সম্রাট।

ওসি বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানতে পেরেছে হত্যার আগে রূপাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন সম্রাট। রূপা বাধা দিলে তাকে গলা টিপে হত্যা করেন। এই ঘটনা থেকে রেহাই পেতে তাকে ১৪ তলা থেকে নিচে ফেলে আত্মহত্যার নাটক সাজান সম্রাট। ঘটনার পরের দিন ১১ আগস্ট সম্রাটকে আদালতে পাঠানো হলে তিনি ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন।

রূপা থাকতেন ঢাকার দক্ষিণ গোড়ানে। আলী আহম্মেদ স্কুল অ্যান্ড কলেজে এইচএসসির শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি।

ঘটনার পর রূপার মা দণ্ডবিধি ৩০২ ধারার হত্যা মামলা করেন। ওই মামলায় আসামি সম্রাটকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

Loading...