• আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চাঁদা তুলে হবে এরশাদের ‌‌‘চল্লিশা’

৮:৫৮ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, আগস্ট ১৮, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- জাতীয় পার্টির তহবিলে টাকা না থাকায় চাঁদা তুলে পার্টির সদ্যপ্রয়াত চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের চল্লিশায় গণভোজের আয়োজন করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। আর এ জন্য পার্টির প্রত্যেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও এমপিকে এক লাখ টাকা করে চাঁদা দিতে হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

শনিবার (১৭ আগস্ট) জাপার বনানীর কার্যালয়ে পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও এমপিদের যৌথ সভায় এ চাঁদা নির্ধারণ করা হয় বলে বৈঠকে উপস্থিত দায়িত্বশীল এক সূত্রে জানা গেছে। বৈঠকে ৫৫ জন প্রেসিডিয়াম সদস্যের মধ্যে ১৫ জন এবং ২২ জন এমপির মধ্যে ৫ জন উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে এরশাদের প্রেস সেক্রেটারি ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায় বলেন, ‘পার্টির ফান্ডে টাকা থাকতেও পারে, নাও পারে। তবে বৈঠকে পার্টির প্রত্যেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও এমপির এক লাখ টাকা চাঁদা নির্ধারণ করা হয়েছে। যে পারবে সে দেবে। আর যে পারবে না সে দেবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ কার্যক্রমও পার্টির সদস্যদের চাঁদার টাকায় চলেছে। তবে এবারের চাঁদার টাকা শুধুমাত্র ঢাকা ও রংপুরের গণভোজ আয়োজনে ব্যয় হবে। কিন্তু পার্টির পক্ষে দেশের অন্যান্য জেলাগুলোর গণভোজের ব্যয় বহন করা সম্ভব হচ্ছে না।’

এর আগে বৈঠকের পর দলটির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গাঁ বলেন, আগামী ২৩ আগস্ট হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুর চল্লিশ দিন অতিবাহিত হবে। ২৩ আগস্ট হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের জন্মাষ্টমী হওয়ায় ‍এর পরিবর্তে ৩১ আগস্ট বাদ জোহর সারাদেশে দোয়া মুনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি বলেন, ‍এদিন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রুহের মাগফিরাত কামনায় আলোচনা সভা ও দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হবে।

এর আগে শুক্রবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে বনানী কার্যালয়ে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের  বলেন, প্রতিবছর ১৪ জুলাই হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকী পালন করবো। যেহেতু, চল্লিশার অনুষ্ঠান এসে গেছে, এটি আয়োজন করতে দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। উপজেলা-জেলা পর্যায়ে নিজ নিজ উদ্যোগে দোয়া মাহফিল ও ভোজের আয়োজন করা হবে।