• আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সাইবার ক্রাইম: চট্টগ্রামের সেই সুন্দরী তাসনুভা কারাগারে

৬:৪৯ অপরাহ্ণ | বুধবার, আগস্ট ২১, ২০১৯ আলোচিত

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- চট্টগ্রামের বহুল সমালোচিত ফেসবুক গ্রুপ গার্লস প্রায়োরিটি’র ক্রিয়েটর ও এডমিন তাসনুভা আনোয়ারকে কারাগারে পাঠিয়েছে চট্টগ্রামের একটি আদালত।

বুধবার দুপুরে চট্টগ্রাম মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আবু সালেহ মোহাম্মদ নোমানের আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাসনুভাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে উচ্চ আদালত থেকে ৮ সাপ্তাহের জামিন নিয়েছিলেন অভিযুক্ত তাসনুভা আনোয়ার। ফ্যাশন সচেতন সুন্দরী এই তরুণীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পেইজ, গ্রুপ ও ব্যক্তিগত ফেসবুক হ্যাক করার অভিযোগ রয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) কামরুজ্জামান জানান, উচ্চ আদালত থেকে নেয়া জামিনের মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে নিন্ম আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিন আবেদন করেছিলেন তাসনুভা। আদালত জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে অভিযুক্ত তাসনুভাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট সূত্রে জানা যায়, ২৬ মে পাঁচলাইশ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাসনুভা আনোয়ার, আমেনা চৈতী, সালমান মোহাম্মদ ওয়াহিদসহ কয়েক জনকে আসামি করে মামলা করেন ইসতিয়াক হাসান।

তার অভিযোগ, সালমান ও তার গ্রুপের কিছু সদস্য ইসতিয়াকের স্ত্রী জুহি চৌধুরীর নামে বিভিন্ন ফেক আইডি খুলে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য প্রচার করছে। তারা ১১ মে জুহি চৌধুরীর ফেসবুক আইডির বিপরীতে নকল ডেথ সার্টিফিকেট বানিয়ে তিনি মারা গেছেন বলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে রিপোর্ট করেছে। এ কারণে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জুহি চৌধুরীর কাছ থেকে ফেসবুক এক্সেস নিয়ে নেয়।

নগর গোয়েন্দা পুলিশ ও কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট সূত্রে জানা গেছে, হ্যাকার সালমান মোহাম্মদ ওয়াহিদের সঙ্গে তাসনুভা আনোয়ারসহ গার্লস প্রায়োরিটি গ্রুপের অ্যাডিমনদের সখ্যতা রয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, একই মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিনে রয়েছেন মামলার অপর আসামী গার্লস প্রায়োরিটি গ্রুপের অ্যাডমিন অ্যাডমিন নাদিয়া আক্তার রুমি। একই মামলায় হ্যাকার সালমান মোহাম্মদ ওয়াহিদ আগে থেকেই কারাগারে রয়েছেন কারাগারে এবং এই মামলায় পলাতক রয়েছেন অপর আসামী আমেনা আক্তার চৈতি।