• আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

যেকোন সময় ভারতের সঙ্গে পরমাণু যুদ্ধ হতে পারে: ইমরান খান

৪:২৩ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২২, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- কাশ্মির ইস্যুতে ভারতের কড়া সমালোচনা করলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেন, ভারতীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে আর কোনও সংলাপে যেতে আগ্রহী নন তিনি।

গত ৫ আগস্ট ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর প্রথম কোন বিদেশী গণমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টকে এক সাক্ষাৎকার দেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তান সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কে সাক্ষাৎকারে মন্তব্য করেন।

ইতিমধ্যে, ভারতের সঙ্গে পাকিস্তান সমস্ত বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাতিল করেছে। কূটনৈতিক সম্পর্ক শিথিল করাসহ ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করেছে। ভারতের সব সিমেনা পাকিস্তানে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তাছাড়া, কাশ্মীর ইস্যু জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদেও তোলা হয়েছে। তবে, একমাত্র চীন বাদে নিরাপত্তা পরিষদের সবাই কাশ্মীর ইস্যু ভারত ও পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে জানিয়েছে।

ইমরান খান বলেন, তাদের সঙ্গে আলোচনার কোনও মানে নেই। আমি অনেক কথা বলেছি। এখন আমি পেছনে ফিরে তাকালে দেখতে পাই, আমি শান্তি প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করেছি, আর তারা একে দুর্বলতা বলে মনে করেছে। আমাদের এর বেশি আর কিছু করার নেই।’

কাশ্মীরের আশি লাখ মানুষের জীবন ঝুঁকিতে রয়েছে বলে ইমরান জানান। তিনি কাশ্মীরে জাতিগত নিধন ও গণহত্যা সংঘটিত হওয়ার ঘটনা ঘটছে বলে আশঙ্ক্ষা করেন।

সম্প্রতি, পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের প্রেসিডেন্ট সরদার মাসুদ খান ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে গণহত্যার অভিযোগ করেছিলেন।

ইমরান খান বলেন, কাশ্মিরে ভারত কোনও ভুল অভিযান চালাতে পারে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারে, তখন পাকিস্তানও জবাব দিতে বাধ্য হবে।

ভারত ও পাকিস্তান উভয় রাষ্ট্র পরমাণু শক্তিধর রাষ্ট্র। পাকিস্তান আশঙ্কা করছে, ভারতের সঙ্গে যেকোন সময় পরমাণু যুদ্ধ সংঘটিত হতে পারে।

পরমাণু যুদ্ধের আশঙ্কা প্রকাশ করে ইমরান বলেন, ‘ভারত ও পাকিস্তান দুটি পরমাণু শক্তিধর রাষ্ট্রের মধ্যে ক্রমাগত উত্তেজনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে, কাশ্মীর ইস্যুতে যেকোন ঘটনা ঘটতে পারে। আমরা যে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি, তা বিশ্বের জন্য একটি সতর্কবার্তা।’

কাশ্মীর ইস্যুতে ইমরান খানের অভিযোগ সম্পর্কে ভারত সরকারিভাবে কোন মন্তব্য করেনি। তবে, ইমরান খানের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে ভারত দাবি করেছে।