• আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বস্তিতে আগুন লাগে না, লাগানো হয়: পঙ্কজ ভট্টাচার্য

৭:১৫ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২২, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- বস্তি কেন পুড়ে তা খতিয়ে দেখতে ও নিম্ন আয়ের মানুষদের আবাসনের জন্য জাতীয় বস্তি কমিশন গঠনের দাবি জানিয়েছেন ঐক্য ন্যাপের সভাপতি পঙ্কজ ভট্টাচার্য।

তিনি বলেন, বস্তিতে আগুন লাগা এটি পরিষ্কার ষড়যন্ত্র। সেখানে আগুন লাগে না, আগুন লাগানো হয়। দায়িত্ব নিয়েই বলছি সরকারের পৃষ্টপোষকতায় সুবিধাভোগী লোকজনই এই আগুন লাগিয়ে থাকে।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা) ও বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিকের উদ্যোগে আয়োজিত এক সংলাপে পঙ্কজ ভট্টাচার্য এসব কথা বলেন।

পঙ্কজ ভট্টাচার্য বলেন, বস্তিগুলোতে একটা সিন্ডিকেট কাজ করে থাকে। যখন যে সরকার ক্ষমতায় থাকেন তখন সেই সরকারের সুবিধাভোগীরা বস্তি চালায়। মাদক বেচাকেনা করে। কিশোর কিশোরীদের দিয়ে নানা ধরণের খারাপ কাজ করায়।

পঙ্কজ ভট্টাচার্য বলেন, প্রত্যেকটি আগুনের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয় কিন্তু সেই কমিটির প্রতিবেদন আলোর মুখ দেখে না।

তিনি আরো বলেন, বস্তিবাসীদের জন্য হাইকোর্টের রুল জারি করা থাকলেও প্রতিবছর বস্তিতে আগুন লাগে আর বস্তি উচ্ছেদ হয়। কেন বস্তি পুড়ে তা খতিয়ে দেখা জরুরি। একটি পৃথক কমিশন গঠন করে সকল অগ্নিকাণ্ডের কারণ অনুধাবন করে বস্তিবাসীদের আবাসনের ব্যবস্থা করতে হবে।

পঙ্কজ ভট্টাচার্য বলেন, জনগণের কাছে দায়বদ্ধ আবাসন কর্তৃপক্ষ তৈরি করে বস্তিবাসীদের ন্যায্য আবাসন অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। বস্তিতে আগুন লাগে না লাগিয়ে দেয়া হয় তা খতিয়ে দেখতে হবে এবং বস্তি নিয়ে রাষ্ট্রের বর্ণবাদী দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন করতে হবে। মনে রাখতে হবে বস্তিবাসীরা মানুষ আর তাদের অবদানের উপর এই রাষ্ট্র ও দেশ টিকে আছে।

পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন-পবা’র চেয়ারম্যান আবু নাসের খানের সভাপতিত্বে ও সম্পাদক ফেরদৌস আহমেদ উজ্জলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সংলাপে বস্তিবাসী নেতারা বলেন, ‘আমরা ভিক্ষা চাই না। আমরা চাই প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে বস্তিবাসীদের জন্য যে ঘোষণা দিয়েছিলেন, তা বাস্তবায়ন করা হোক। আর এই বস্তিবাসী ও নিম্ন আয়ের মানুষরাই যেন আবাসন অধিকার পায়।