• আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

৩২ লাখ মামলার ভারে বিচার ব্যবস্থা জর্জরিত: আইনমন্ত্রী

৭:২৫ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২২, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- অপেক্ষমাণ মামলা নিষ্পত্তির মাধ্যমে চাপ কমানোর চেষ্টা চললেও নতুন মামলার কারণে তা হচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

তিনি বলেন, ‘৩২ লাখ মামলার ভারে বিচার ব্যবস্থা জর্জরিত। এই চাপ বিচারকদের ওপরও আছে। সরকার এ বিষয়ে সম্পূর্ণ ওয়াকিবহাল। মামলাজট কমাতে সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ চলমান রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ন্যাশনাল ‘জাস্টিস অডিট বাংলাদেশ: ফলাফল উপস্থাপন ও আলোচনা’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

আনিসুল হক বলেন, জাস্টিস অডিট মতে, ২০১৩ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত আমাদের আদালগুলোতে মামলা নিষ্পত্তির হার বেড়েছে ১৮ শতাংশ। অপরদিকে এই তিন বছরে মামলাজট বেড়েছে ২৯ শতাংশ। এভাবেই প্রতি বছর আদালতে বিচারাধীন মামলাজট বাড়ছে।

আইনমন্ত্রী বলেন, মামলাজট কমানোর লক্ষে সরকার বিদ্যমান আইন সংশোধন সহ বহুমুখী পদক্ষেপ নিয়েছে। মাদক মামলার বিচারের প্রতিবন্ধকতা দূর করার জন্য এ সম্পর্কিত আইন সংশোধনের প্রক্রিয়া চলছে। জাতীয় সংসদের আগামী অধিবেশনেই এই আইন সংশোধনের বিল পাসের চেষ্টা করা হবে। তা নাহলে অধ্যাদেশ আকারে পাস করে এটা চালু করা হবে।

এছাড়া ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনালের মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষে যুগ্ম জেলা জজের পাশাপাশি সিনিয়র সহকারী জজ ও সহকারী জজকে এসব মামলার বিচার করার ক্ষমতা দেয়া হবে। সেজন্য আইন সংশোধনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে যা খুব শিগগিরই সংসদে পাস হয়ে যাবে।

তিনি বলেন, দেশের শতকরা ৮৭ ভাগ মানুষের বিচার বিভাগের উপর আস্থা আছে। আজকের যে জট সেটা যদি ১০ বছর পর ৬২ লাখে দাঁড়ায় তাহলে কিন্তু এই ৮৭ ভাগ আস্থা কমে ৩৭ ভাগে নেমে আসবে। সেজন্যই আমাদের মামলাজট কমানোর যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। এক্ষেত্রে জাস্টিস অডিটের তথ্য এবং অভিজ্ঞ বিচারকদের পরামর্শকে কাজে লাগানো যেতে পারে।