রুপার আত্মহত্যা ঘটনায় অভিযুক্ত তামিম গ্রেফতার

১০:২৫ অপরাহ্ণ | শনিবার, আগস্ট ৩১, ২০১৯ আলোচিত

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: পিরোজপুরে ভান্ডারিয়ায় বখাটের উৎপাত সইতে না পেরে স্কুলছাত্রী রুকাইয়া রুপার আত্মহত্যার ঘটনায় বখাটে অভিযুক্ত তামিমকে আটক করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় মেয়ের বাবা মোঃ রুহুল আমীন মুন্সী ভান্ডারিয়া থানায় বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ৪-৫ জনকে অজ্ঞাত রেখে মামলা করেন।

শনিবার (৩১ আগস্ট) বিকেলে ভান্ডারিয়া উপজেলার ভান্ডারিয়া পৌর শহরের তামিমকে নিজ বাড়ি থেকে পিরোজপুর ডিবি পুলিশ এবং ভান্ডারিয়া থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মঠবাড়িয়া সার্কেল) মোঃ হাসান মোস্তফা স্বপন। আরাফ হাসান তামিম খান (১৯) ভান্ডারিয়া উপজেলার ভান্ডারিয়া পৌর শহরের মঞ্জু খানের ছেলে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ হাসান মোস্তফা স্বপন জানান, বখাটে তামিম খান স্কুল ছাত্রী রুপাকে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করতো। শুক্রবার তামিম স্কুল ছাত্রী রুপার বিকৃত ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়ার পরে রুপা বাড়িতে গিয়ে ঘুমের ওষুধ খায় এবং বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় রুপার পরিবারের লোকজন তামিমকে দায়ী করে।

এর পরিপেক্ষিতেই তামিমকে পুলিশ আটক করে। অন্য অসামিরা হলেন- একই উপজেলার আঃ মালেক হাওলাদারের ছেলে রাইয়ান, ইরিন (পিতা অজ্ঞাত), আলম জোমাদ্দারের ছেলে ওলিদ, সৈয়দ রফিকুল ইসলামের ছেলে সাজিদকে আসাম।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ হাসান মোস্তফা স্বপন বলেন, এ ঘটনায় অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে।