• আজ ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মিরপুরে ঝিলপাড় বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে ৬৭৫৪ জন মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত

৫:৫১ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯ ঢাকা, দেশের খবর

রাজু আহমেদ, ষ্টাফ রিপোর্টার- রাজধানীর মিরপুরের চলন্তিকা এলাকায় ঝিলপাড়ের বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৬ হাজার ৭৫৪ জন মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. শাহ্ কামাল।

সম্প্রতি সংসদ ভবনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৫ম বৈঠকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সচিব।

গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, গত ১৬ আগষ্ট সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে মিরপুরের চলন্তিকা বস্তিতে এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ২ হাজার ২৪৮টি ঘর, ১ হাজার ৯৮৮টি পরিবার এবং ৬ হাজার ৭৫৪ জন মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সচিব বলেন, অবৈধভাবে প্লাস্টিকের পাইপের মাধ্যমে অনিরাপদ গ্যাস সংযোগের ফলে পাইপ ফেটে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ঘটে। অগ্নিকাণ্ডের কারণ অনুসন্ধান ও করণীয় সম্পর্কে সুপারিশমালা প্রণয়নের জন্য একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি গঠন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি ।

এদিকে সচিবের ওই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে কমিটির সভাপতি এবিএম তাজুল ইসলাম বলেন, বস্তি কার কারণে গড়ে উঠে, কেন উঠে এবং কাদের নিয়ন্ত্রণে থাকে, তা খতিয়ে দেখতে হবে। সিটি কর্পোরেশন, রাজউক, গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষ কিংবা যাদের জায়গায় বস্তি গড়ে ওঠেছে তারা কেন এগুলো দেখছে না, তা জানা দরকার। কোনো দুর্ঘটনা হলেই দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়কে সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসতে হয়। যাদের কারণে দুর্ঘটনা ঘটে তাদের খুঁজে পাওয়া যায় না। যাদের জমিতে বস্তি গড়ে উঠেছে এবং দুর্ঘটনা ঘটছে, সেই দুর্ঘটনার সমস্ত দায়দায়িত্ব সেই জমিওয়ালাকে বহন করতে হবে মর্মে সবাইকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেয়ার জন্য অনুরোধ করেন তিনি।