থানার মধ্যেই পুলিশকে মারল নারী

৭:৫০ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বাড়িওয়ালা-ভাড়াটে ঝগড়া মেটাতে দুই পক্ষকে থানায় ডেকে অভিযোগকারীর মার খেলেন পুলিশ সদস্য। পরে ওই পুলিশ সদস্য বাদী হয়ে মামলা করতে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার সন্ধ্যায় পশ্চিমবঙ্গের হরিদেবপুর থানায় এমন ঘটনা ঘটে।

কলকাতার প্রভাবশালী গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় হরিদেবপুর থানা এলাকার বাসিন্দা বৈশাখী সিংহ নামে এক নারী থানায় অভিযোগ করেন তার বাড়িওয়ালা গৌতম কোলের বিরুদ্ধে।

বৈশাখীর অভিযোগ, গৌতম তাদের বাড়ি ছেড়ে দিতে বলেছেন। কিন্তু পাওনা ১৪ হাজার টাকা ফেরত দিচ্ছেন না। বৈশাখীর অভিযোগ পেয়ে পুলিশ গৌতম কোলেকে ডেকে পাঠান। কিন্তু, গৌতম থানায় এসে জানান যে বৈশাখী আদৌ তার ভাড়াটে নন। তাই টাকা ফেরত দেওয়ার কোনো প্রশ্নও নেই।

এর পর পুলিশ বৈশাখীর ভাই রাজীব ভুঁইঞাকে থানায় আসতে বলেন। পুলিশের দাবি, তার ভাইকে থানায় আসার কথা বলতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন বৈশাখী। তিনি চেঁচামেচি শুরু করে দেন। বাড়িওয়ালাকে টাকা ফেরত দেওয়ার কথা চিৎকার করে বলতে থাকেন। থানার মধ্যে এ রকম চিৎকার-চেঁচামেচি করায়, তাকে সামলাতে ছুটে আসেন এক নারী পুলিশকর্মী।

সেই পুলিশকর্মী আসতেই হাত-পা ছুড়তে শুরু করে দেন ওই নারী। ওই পুলিশকর্মীকে লক্ষ্য করে ঘুষিও মারেন। তাতেই আহত হন ওই নারী পুলিশকর্মী।