• আজ ৩রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

তানোরে পরিবেশ বাঁচাতে তারণ্যের শপথ

৫:১৬ অপরাহ্ণ | রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯ রাজশাহী
TANORE (RAJSHAHI) GREEN CAMPASS NEWS PHOTO 15.09.2019

অসীম কুমার সরকার, তানোর (রাজশাহী)প্রতিনিধি: ‘আমরা তারণ্য, আমরা অনন্য’, গাছ লাগিয়ে পরিবেশ বাঁচাব’, ‘পানির অপচয় কমাব’, পাখির নিরাপদ আশ্রয় গড়বো, পাখি শিকার বন্ধ করবো,’ ‘বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয় হবো অযথা জ্বালিয়ে রাখব না’, এ রকম বেশ কিছু স্লোাগান লেখা প্ল্যাকার্ড ঝুলছে দেয়ালে।

তরুণ প্রজন্মের এমন সব শপথে পূর্ণ হয়ে উঠেছিল তানোর পৌর এলাকার চাপড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের কক্ষ। আর পরিবেশ ও প্রাণপ্রকৃতি রক্ষায় শপথ বাক্য পাঠ করান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা: নাসরিন বানু।

তিনি বলেন, ‘গাছ মানুষের পরম বন্ধু। তাই সবাইকে বেশি বেশি করে গাছ লাগাতে হবে। কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া  শিক্ষার্থীদের পরিবেশ বিষয়ক এমন সুন্দর একটি সংগঠন আত্মপ্রকাশে আশা করি তারুণ্যে হাত ধরেই  পুরো উপজেলার পরিবেশ বান্ধব উপজেলায় রূপ নিবে।’

আজ রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ‘গ্রীণ ক্যাম্পাস প্রচারাভিযান ২০১৯’ শিরোনামের ব্যতিক্রমী এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের পরিবেশবিষয়ক সংগঠন উপজেলা পক্ষীনিবাস ও প্রাণবৈচিত্র্য সোসাইটি। অনুষ্ঠানে পরিবেশ রক্ষারও শপথ নেন সংগঠনের সদস্যরা, ওই স্কুলের শতাধিক শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবৃন্দ।

দিনব্যাপী এ আয়োজনে উপজেলার ৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ‘গ্রিন ক্যাম্পাস, ক্লিন ক্যাম্পাস’ প্রচারাভিযানে পরিবেশ ও প্রাণ বৈচিত্র্য নিয়ে শপথ গ্রহণ ও শতাধিক বনজ, ফলজ ও ঔষুধি বৃক্ষ রোপন করা হয়। পাশাপাশি সকল শিক্ষার্থী মিলে নিজ নিজ ক্যাম্পাস পরিস্কার পরিচ্ছন্ন অভিযানে অংশ গ্রহণ করে।

আগত দর্শনার্থীরা পরিবেশের জন্য নিজেদের করণীয় এবং পরিবেশ বাঁচাতে নিজেদের ভাবনাগুলো লিখে দেন শপথ ব্যানারে। নিজের করা শপথ প্রসঙ্গে সংস্থার সদস্য সচিব আবু রায়হান রিকো বলেন, ‘আমি গাছ গালাবো ও পাখি শিকার করবো না বলে শপথ করেছি। এভাবেই সবার একটি করে শপথ বদলে দিতে পারে পরিবেশ। পরিবেশ রক্ষায় সবাইকে সচেতন করে তোলাই এ আয়োজনের লক্ষ্য।’

চাপড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: জিল্লুর রহমানের সভাপতিত্বে আনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা (ভারপ্রাপ্ত)  প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোছা: জোবেদা খানম, জাতীয় কৃষি পদক প্রাপ্ত কৃষক নূর মোহাম্মদ, উপদেষ্টা ও তানোর সাহিত্য পরিষদের সভাপতি অসীম কুমার সরকার, বে-সরকারি গবেষণা উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান বারসিক সহযোগী কর্মসূচী কর্মকর্তা অমৃত কুমার সরকার প্রমুখ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সোসাইটির আহবায়ক শাওন সরকার সুজয়, যুগ্ম আহবায়ক অনুপ চক্রবর্তী, মুক্তার হোসেন, সদস্য পাপ্পু দাসসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।