• আজ ৩রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালকের সঙ্গে লেখক ঐক্যের মতবিনিময়

১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ ঢাকা, দেশের খবর

নিজস্ব প্রতিবেদক, সময়ের কণ্ঠস্বর- বিভিন্ন কর্মসূচি এবং একুশে গ্রন্থমেলা নিয়ে গতকাল সোমবার বিকালে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজীর সঙ্গে বাংলাদেশ লেখক ঐক্যের মতবিনিময় সভা হয়েছে।

সভায় বাংলা একাডেমির উদ্যোগে সরকারি ও বেসরকারি সহযোগিতায় একটি লেখক চিকিৎসা তহবিল গঠন, বাঙালি ১২২ জন লেখকের রচনাবলি প্রকাশ, একাডেমি থেকে প্রকাশিত গুরুত্বপূর্ণ একক লেখকের বইয়ের পুনর্মুদ্রণ, উচ্চশিক্ষার জন্য বই প্রণয়ন, একাডেমি চত্বরের পাঠাগারকে আরও সময়োপযোগী করা ও ই-লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠা করা, সংরক্ষিত বিরল সাহিত্যসমূহ ডিজিটাল ফর্মে প্রকাশ করা, একাডেমি চত্বরে উন্মুক্ত সাহিত্য মঞ্চ, ক্যান্টিন ও আড্ডার ব্যবস্থা ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।

বিষয়গুলোর অধিকাংশের সঙ্গে মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী একমত পোষণ করে বলেছেন, আমরা পূর্বেও বাংলাদেশ লেখক ঐক্যের প্রস্তাবগুলো পেয়েছি, এখন আবারও পেলাম। আমরা অনেক কিছু ইতোমধ্যে শুরু করে দিয়েছি, যার মধ্যে রচনাবলী প্রকাশের দিকে অনেক বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে, মুদ্রণ শেষ হয়ে গেছে সে-সব বইয়ের একটি সার্বিক তালিকা প্রস্তুত করা হচ্ছে যেগুলো একনাগারে প্রকাশের কাজে হাত দেয়া হবে।

তিনি বলেন, গবেষণা খাতকে বেশ গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে, অনুবাদের একটি পূর্ণাঙ্গ বিভাগ চালুর জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি অনেক দূর এগিয়ে গেছে, পাঠাগার ও বিরল ডকুমেন্টের ডিজিটালাইজেশনের কাজও চালু হয়েছে।

তবে লেখক চিকিৎসা তহবিল গঠনের ব্যাপারে মহাপরিচালক জানিয়েছেন, যেহেতু প্রধানমন্ত্রীর দফতরে একটি দুস্থ শিল্পী-সহায়তা তহবিল এবং সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের আরেকটি শিল্পী কল্যাণ তহবিল রয়েছে, তাই এ বিষয়ে একাডেমী নতুন কোনো তহবিল গঠনের কথা ভাবছে না।

উচ্চতর শিক্ষার বাংলা বই প্রণয়নের ব্যাপারে বিজ্ঞান বইয়ের কিছু সমস্যার কথা তুলে ধরেছেন তিনি। যেমন, একটি বই অনূদিত হলে তার কয়দিন বাদেই সেই বইয়ের গুরুত্ব থাকে না বৈজ্ঞানিক তত্ত্বের পরিবর্তনের ফলে।

এছাড়া উন্মুক্ত সাহিত্য মঞ্চ, ক্যান্টিন ও আড্ডা সুবিধা এবং মানসম্মত ছোটকাগজকে বিজ্ঞাপন সহায়তা দেয়ার ব্যাপারে মহাপরিচালক খুব দ্রুত উদ্যোগ গ্রহণ করবেন বলে জানিয়েছেন।

মতবিনিময়সভায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ লেখক ঐক্যের সভাপতি, অনুবাদক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক জিএইচ হাবীব, বাংলাদেশ লেখক ঐক্যের প্রাক্তন সভাপতি কথাসাহিত্যিক রাখাল রাহা, অর্থ সম্পাদক কবি ও সংগঠক আলমগীর খান এবং সাধারণ সম্পাদক শওকত হোসেন।