• আজ ৩রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ইতালিতে কুড়িয়ে পাওয়া অর্থ ফিরিয়ে দিয়ে পুরস্কারও নিলেন না বাংলাদেশি তরুণ

১:০১ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ প্রবাসের কথা

প্রবাসীর কথা ডেস্ক- ইতালির রোমে রাস্তায় দুই হাজার ইউরোসহ একটি মানিব্যাগ কুড়িয়ে পেয়েছিলেন বাংলাদেশি তরুণ মুসান রাসেল।

সেটি মালিকের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার পর প্রতিদান হিসেবে তাকে পুরস্কার দেয়ার প্রস্তাবও সবিনয়ে প্রত্যাখ্যান করেন রাসেল। এরপর থেকে মুসানকে নিয়ে এখন ব্যাপক আলোচনা ইতালির গণমাধ্যমে।

ছবিসহ রাসেলের সাক্ষাৎকার ছেপেছে ইতালির লা রিপাবলিকা পত্রিকা। সেখানে তিনি সবিস্তারে বর্ণনা করেছেন পুরো ঘটনা।

জানা যায়, গত শুক্রবার ইতালির রাজধানী রোমের রাস্তায় মানিব্যাগটি পান রাসেল। সেটা নিয়ে সরাসরি চলে যান পুলিশের কাছে। এরপর যথাযথ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মানিব্যাগটি মালিকের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়।

লা রিপাবলিকা পত্রিকা রাসেলের কাছে জানতে চেয়েছিল, প্রথম যখন তিনি ওয়ালেটটি খুঁজে পান, তখন তিনি কি ভেবেছিলেন। রাসেল জানান, ওয়ালেটের ভেতরটা দেখে তার মনে হয়েছিল, যিনি এগুলো হারিয়েছেন, তিনি নিশ্চয়ই খুবই সমস্যায় আছেন।

সততার জন্য অনেক প্রশংসিত হন রাসেল। অবশ্য এই সততাকে ব্যতিক্রম কিছু মানতে নারাজ ২৩ বছর বয়সী এই তরুণ, “আমি ব্যতিক্রম কিছু করিনি। ওটা আমার টাকা ছিল না।”

“আমি টাকার পরিমাণটাও জানতাম না। কারণ টাকাটা আমি গুনে দেখিনি। আমি কেবল এসব কিছু থানায় নিয়ে গিয়েছিলাম। এটা সততার ব্যাপার। আমার পরিবার আমাকে সততা শিখিয়েছে।”

মানিব্যাগে দুই হাজার ইউরো (প্রায় ১ লাখ ৮৬ হাজার টাকা) ছাড়াও ছিল বেশ কয়েকটা ক্রেডিট কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, ব্যক্তিগত কাগজপত্র ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রোম শহরের মাঝামাঝি অবস্থানে রাসেলের ছোট একটা লেদার সামগ্রীর স্টল রয়েছে। সাত বছর ধরে এই শহরে বাস করছেন তিনি। ম্যানিব্যাগটির মালিক এখন রাসেলের দোকানের নিয়মিত কাস্টমার।