বাড়িতে স্ত্রী রেখে মালয়েশিয়া থেকে মোবাইলে অন্য তরুণীকে বিয়ে, অতঃপর..

৩:২৬ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯ ঢাকা, দেশের খবর

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলের সখীপুরে স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে গত দুই দিন অনশন শুরু করেছেন ঢাকার এক তরুণী।

বুধবার বিকেল থেকে তিনি উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়নের কালমেঘা চৌরাস্তা গ্রামের শামসুল হক মধু মিয়ার ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসী প্রেমিক আনোয়ার হোসেনের বাড়িতে এ অনশন শুরু করেন।

এদিকে ওই তরুণীর বাড়িতে আগমন জেনে প্রেমিক আনোয়ার হোসেন গা ঢাকা দিয়েছে।

জানা যায়, মালয়েশিয়া প্রবাসী আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে ঢাকার যাত্রাবাড়ী এলাকার এক তরুণীর মুঠোফোনের মাধ্যমে প্রেম হয়।

ওই তরুণী জানান, প্রেমের সূত্রে গত এক বছর আগে তারা কাবিন রেজিস্ট্রিমূলে বিয়েও করেন। তবে এ বিয়ে মুঠোফোনের মাধ্যমে হলেও গত ৩ সেপ্টেম্বর প্রেমিক আনোয়ার হোসেন মালয়েশিয়া থেকে দেশে এসে কাজী অফিসে নিজে ওই কাবিনে সাক্ষর করেন। পরে ঢাকায় তাদের বাসায় ৫দিন অবস্থানের পর কিছু না বলেই উধাও হয়ে তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন।

ওই তরুণী সাংবাদিকদের আরও বলেন, খোঁজে বাড়িতে আসায় আনোয়ারের স্ত্রী ও অন্যরা তাকে ব্যাপক মারপিট করেছেন। শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে মারপিটের আঘাতের চিহ্নও সাংবাদিকদের দেখান।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া সেলিম বলেন, তিনি ওই বাড়িতে গিয়ে অনশনরত তরুণীর সঙ্গে কথা বলেছেন। সার্বিক বিষয়াদি তাকে ওই তরুণী অবগত করলেও প্রেমিক আনোয়ার হোসেন সটকে পড়ায় কোনো সিদ্ধান্তের কথা এখনোও বলা যাচ্ছে না।

এদিকে ওই তরুণী তার দাবি প্রতিষ্ঠা না হওয়া পর্যন্ত তিনি এখানেই অবস্থান করবেন বলে জানিয়েছেন।

Loading...