সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শীতের বার্তা নিয়ে আসছে ভোরের শিশির

১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯ সুখবর প্রতিদিন

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: এখন ভোরে ঘুম থেকে উঠে শীতের আসার আভাস পাওয়া যাচ্ছে শিশির ভেজা ঘাস দেখে । শিশির মাখা আশ্বিনের একরাশ সজীব স্বপ্ন নিয়ে প্রকৃতি এখন মানুষকে কাছে টানছে।

কুয়াশা মাখা প্রকৃতি আর মাঠে মাঠে ফসলের সম্ভাবনার ঘ্রাণ, কৃষকের চোখে মুখে আনন্দের রেখা। উৎসব আর আনন্দের মাঝে নিমগ্ন খেটে খাওয়া মানুষ। এমন সময় প্রকৃতি দূর করে দেয় শত কষ্টের গ্লানি। প্রকৃতির অপরুপ ছবিতে সাজানো মাকরসার জালে আটকা পরেছে সাহিত্য প্রেমিরা।

ভোরবেলা মাঠে ময়দানে ঘুরে দেখা যায়, ভেরের সূর্য। হালকা লালচে রংয়ে দিচ্ছে ঝিলিক। সূর্যের কিরণে মুক্তা মালা চোখে পড়ে। কুয়াশার প্রতিটি কনা মুক্তার মতো জ্বলছে।

গ্রীষ্ম আর শীতের মধ্যে হেমন্ত যেন অপরূপ এক সেতুবন্ধন। ভাদ্রের মাঝামাঝি সন্ধ্যে থেকে ভোর পর্যন্ত শীতল হাওয়া আর বিকেলে ঝরতে থাকা ধুসর কুয়াশা জানাচ্ছে দুয়ারে শীত কড়া নাড়ছে। মাঠে প্রান্তরে ভোর বেলা শিশির মাখা ধানের ডলা জানান দিচ্ছে সম্ভাবনার বার্তা।

গাইবান্ধা, কুড়িগ্রামসহসহ উত্তরের জেলাগুলোতে ভাদ্রের মাঝামাঝিতে ভোরবেলা দুর্বা ঘাসে শিশির দেখা যায়। কয়েক দিন থেকে ভোরে ফ্যানের প্রয়োজন হচ্ছে না তাই শীত শির শির করে দরজায় করা নাড়ছে।

লেখক ও সাংবাদিক গোবিন্দ লাল দাস জানান, প্রকৃতি জানান দিচ্ছে শীতের আগমনীর বার্তা। শীত মানেই উৎসব। যেন পিঠা আর জামাই মেলা নিয়ে আসে শীতকাল।

আবহাওয়া আর জলবায়ুর পরিবর্তনের ফলে এখন শীত ভাদ্রের মাঝেই উপলব্ধি করা যাচ্ছে। ভোর রাতে কাঁথা কম্বল গায়ে দিতে হয়। তাই বোঝা যায় শীত বেশি দূরে নেই।