• আজ ৩রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বাউফলের বাজারে কথিত প্লাষ্টিকের চাল নিয়ে ফেইসবুকে তোলপাড়

১০:২০ অপরাহ্ণ | রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯ বরিশাল
BAUPHAL RICE NEWS-1

কৃষ্ণ কর্মকার, বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায় কতিথ প্লাষ্টিক চাল নিয়ে চলছে তোলপার। গত শনিবার বিকালে উপজেলার পৌর শহরের একটি বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা সালমা রহমান চাল ভাঁজতে গিয়ে দেখেন চালটি পুরে কালেঅ হয়ে জমাট বেঁেধ গেছে। পড়ে ওই গৃহিনীর স্বামী সাবেক কমিশনার জলিলুর রহমান চালের ছবিসহ ভিডিও ফুটেজ ও প্লাষ্টিকের চাল লিখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করলে শুরু হয় তোলপাড়। মুহুর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় ওই ছবি ও ভিডিও।

সাবেক কমিশনার জলিলুর রহমান জানান, চলতি মাসের নয় তারিখে পৌরশহরের এক চাল দোকানীর কাছ থেকে ৫০ কেজি ওজনের বস্তা কিনেন। দোকানীর ভাষ্য মতে স্বর্না নামের ওই চাল তারা গত কয়েকদিন পর্যন্ত ওই চাল রান্না করে খেয়েছেন। কিন্তু গত শনিবার তার স্ত্রী বিকাল তিনটার দিকে শখের বশে ওই চাল ভাঁজতে গিয়ে দেখেন চাল গুলো পুড়ে ধোঁয়া উড়ছে। এক পর্যায়ে চাল গুলো পুড়ে কালো হয়ে জমাট বেঁেধ যায়। জলিলুর রহমানের ধারনা চাল গুলো প্লাস্টিক জাতীয় কোন কিছু দিয়ে কৃত্তিম ভাবে তৈরী করা হয়।

শিক্ষিকা সালমা রহমান জানান, চাল গুলো ভাঁজার সময় প্রথমে স্বাভাবিক অবস্থায় থাকলেও ধীরে ধীরে চাল গুলো থেকে ধোয়া উড়তে থাকে। এক পর্যায়ে চাল গুলো গলে পুড়ে কালো জমাট বেঁেধ যায়। তবে ভাত রান্না করার সময় কিছু ভাত দ্রুত গলে যায়।

ফেসবুকে আপলোড করা ছবিতে দেখা যায়, চালের বস্তার গায়ে এক নারীর ছবিসহ লেখা রয়েছে, নুরজাহান ব্রান্ড, সুপার ফাইন রাইস।

একটি নির্ভর যোগ্য সুত্রে জানা গেছে, উপজেলা কিছু অসাধু ব্যবসায়ী খোলা বাজার থেকে বিভিন্ন কোম্পানীর লোগোকৃত বস্তা কিনে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা স্থানীয় ভাবে বস্তাজাত করে বাজারে বেশি দামে বিক্রি করছেন। তবে তারা কোন রকমের চাল স্থানীয় ভাবে বস্তাজাত করেন তা সঠিত তথ্য পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পিজুস চন্দ্র দে এর দৃষ্টি আর্কশন করলে তিনি জানান, বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখা হচ্ছে।