সুনামগঞ্জ হাওরে নৌকা ডুবি: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯, নিখোঁজ ২

১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৯ দেশের খবর, সিলেট

জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি- সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার রফিনগর ইউনিয়নের কালিয়া কুঠা হাওরে নৌকা ডুবির ঘটনায় আরোও এক মহিলার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন আরও দুইজন।

বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল পৌনে ১০ টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল এ মরদেহ উদ্ধার করে। এর আগে ভোরে আরও ৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তাদের মধ্যে দুই জন শিশু ও দুই জন মহিলা। দু দিনে ৬শিশু ও তিন মহিলার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম নজরুল জানান, আজ বুধবার যাদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে তারা হলেন- রফিনগর ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রামের আরজ আলী’র স্ত্রী রইতনু নেছা (৩৫), একই গ্রামের জাসদ মিয়ার মেয়ে শান্তা বেগম (৪), চরনাচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামের করিমা বেগম (৬২), নোয়ার চর গ্রামের আসাদ মিয়া (৬) ও আফজল হোসেনের স্বামী আজিজুন বেগম।

সুনামগঞ্জ ফায়ার সাভির্স ডেপোটি এসিসটেন্ড ডাইরেক্টর শফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া উদ্ধারের ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করেন। জানান, তাদের উদ্ধার তৎপরতা অব্যহত আছে।

উল্লেখ, মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধায় রফিনগরের ইউনিয়নের মাছিমপুর থেকে নৌকায় করে চরনার চর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামে যাচ্ছিল। এ সময় কালিয়া কুঠা হাওরে ঝড়ের কবলে পড়ে ডুবে যায় নৌকাটি। গতকাল উদ্ধারকৃত নিহত শিশুরা হল, মাছিমপুর গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে শামীম (৩), একই গ্রামের বদরুল মিয়ার ছেলে আবিদ (৪), নোয়ারচর গ্রামের আফাজালে ছেলে সোহান ২বছর ও চরনারচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামের ফিরোজ আলীর ছেলে আজম ২ বছর।