নাটোরের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, ১ হাজার একর ফসল পানির নিচে

২:০৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, অক্টোবর ১, ২০১৯ দেশের খবর, রাজশাহী

তাপস কুমার, নাটোর প্রতিনিধি- পদ্মা নদীর পানি বৃদ্ধিতে নাটোরের লালপুর উপজেলার চরাঞ্চলের প্রায় ১ হাজার একর জমির সবজিসহ বিভিন্ন ফসল ডুবে গেছে।

উপজেলার নওসারা সুলতানপুর, দিয়াড়শঙ্করপুর, চাকলা বিনোদপুর, আরাজি বাকনাই, রসুলপুর, বাকনাই, বন্দোবস্ত গোবিন্দপুর ও লালপুর চরের শীতকালীন আগাম সবজি মুলা, পুঁইশাক, লালশাক, বেগুন, লাউ, মাষকলাই খেত পানির নিচে তলিয়ে গিয়ে সম্পূর্ণ বিনষ্ট হয়ে গেছে।

এছাড়া আখ, পেঁপে, কলা, পেয়ারা, বরইসহ অন্যান্য ফসলের জমিও এখন পানির নিচে।

মঙ্গলবার পদ্মা নদীর চরাঞ্চল ঘুরে দেখা গেছে, ফসলের মাঠজুড়ে থই থই করছে পানি। সবজি খেতের চিহ্ন পর্যন্ত নেই। পেঁপে গাছের গোড়ায় পানি জমায় গাছ মরে নুয়ে পড়েছে। আখ, কলা, পেয়ারা, বরই খেত পানিতে পরিপূর্ণ। কোথাও কোথাও আখ গাছের মাথা দেখা যাচ্ছে মাত্র।

বিলমাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিন্টু বলেন, ‘পদ্মার পানি বৃদ্ধিতে আমার এলাকার পাঁচ-সাতটি চরের জমি তলিয়ে যাওয়ায় কৃষকদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন।’

উপজেলা কৃষি অফিসার রফিকুল ইসলাম বলেন, পদ্মা নদীর পানি বৃদ্ধিতে প্রায় ২২.২৫ হেক্টর সবজির খেত তলিয়ে সবজি নষ্ট হয়েছে। আখ ক্ষেতে পানি ডুকলেও পানি নেমে গেলে তা স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

লালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মুল বানীন দ্যুতি বলেন, গত রবিবার আমি পদ্মার পানিতে ডুবে যাওয়া চরাঞ্চল পরিদর্শন করেছি। সেখানে শীতকালীন সবজিসহ বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।