বিপ টেস্ট পরীক্ষায় ফেল আশরাফুল-রাজ্জাক-নাসির

৫:৫৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, অক্টোবর ১, ২০১৯ খেলা
nasir--176528

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ ফিটনেসের পরীক্ষা দিয়েই এবার জাতীয় লিগে খেলতে হবে ক্রিকেটারদের। ব্যপারটা বড়ই দুশ্চিন্তার ছিল সিনিয়র ক্রিকেটারদের জন্য। বিশেষ করে যারা জাতীয় দল, এইচপি দল কিংবা বয়ঃভিত্তিক দলগুলোতে নেই অনেক দিন ধরে।
গত কদিন ধরে এ নিয়ে চিন্তার শেষ নেই তাদের। আজ প্রথম দিনে ছিল বিপ টেস্ট। এই পরীক্ষার মার্কস ধরা হয়েছিল ১১ পয়েন্ট।

মঙ্গলবার (১ অক্টোবর) মিরপুরে শেরে-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। তবে, বিপ টেস্টে ৯.৪ পয়েন্ট পেয়ে উত্তীর্ণ হতে পারেননি ঘরোয়া ক্রিকেটের নিয়মিত পারফর্মার এবং অভিজ্ঞ স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক। ফলে জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) অংশ নিতে হলে আবারো ফিটনেস পরীক্ষা দিতে হবে তাকে।

জাতীয় দলের হয়ে সর্বশেষ ২০১৮ সালে খেলা রাজ্জাক ছাড়াও অনুত্তীর্ণ হওয়া ক্রিকেটারদের তালিকায় আছেন মোহাম্মদ আশরাফুল, নাসির হোসেন, ইলিয়াস সানি, আরাফাত সানি, নাদিফ চৌধুরী এবং মোহাম্মদ শরিফ।

বিপ টেস্টে ৯.৬ পয়েন্ট পেয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক আশরাফুল। এছাড়াও অলরাউন্ডার নাসির ৯.৭, ইলিয়াস সানি ৯.৫, আরাফাত সানি ১০.৯, নাদিফ ১০.৪ এবং শরিফ ১০.৬ পয়েন্ট পেয়েছেন।

এনসিএলে অংশ নিতে হলে খেলোয়াড়দের বিপ টেস্টে পাস করা বাধ্যতামূলক করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। যেখানে পাস মার্ক করা হয়েছে ১১। এদিকে বিপ টেস্টে পাস করতে না পারলেও অবশ্য নিরাশ হওয়ার কিছু থাকছে না খেলোয়াড়দের। কারণ আরো কয়েকবার পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ থাকছে তাদের। এরপরের পরীক্ষায় উৎরাতে পারলে এনসিএলে খেলতে পারবেন তারা।

এর আগের জাতীয় ক্রিকেট লিগেও ক্রিকেটারদের বিপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করেছিল বিসিবি। যদিও সেবার ৯ পয়েন্ট পেয়েও সুযোগ পেয়েছিলেন অনেক ক্রিকেটার। কিন্তু এবার টুর্নামেন্টের মান বাড়াতে পাস মার্ক বাড়িয়েছে দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

Loading...