সংবাদ শিরোনাম
ইলিয়াস কাঞ্চনকে নিয়ে নিজের মন্তব্যের পক্ষে সাফাই গাইলেন শাজাহান খান | মোবাইল কিনলেই সাথে পেঁয়াজ ফ্রি! | পেঁয়াজ ছাড়া রান্না হলে আওয়ামী লীগ ছাড়াও দেশ চলবে: রাঙ্গা | নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম নিয়ন্ত্রনে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ | বিশ্ববিদ্যালয়গুলো ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হচ্ছে: রাষ্ট্রপতি | হাসপাতালে চেয়ার না পেয়ে নিজের কাঁধেই বসালেন অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে! | সাপাহারে সীমান্ত দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশকালে ৩ যুবক আটক | সিরাজগঞ্জে আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ: বিএনপির ১৫৭ নেতাকর্মীর নামে মামলা | মির্জাপুরে একরাতে দুই নারী ও এক শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা | মুন্সীগঞ্জের তিনটি ইটভাটা উচ্ছেদ, ১৩ লাখ টাকা জরিমানা |
  • আজ ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলকে পেটাল ছাত্রলীগ

৬:১৬ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৩, ২০১৯ শিক্ষাঙ্গন

সময়ের কণ্ঠস্বর, জাবি- বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও ক্যাম্পাসে সহাবস্থানের দাবিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখা ছাত্রদলের মিছিলে হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এতে ছাত্রদলের পাঁচ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সকাল নয়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন আব্দুর রশিদ, এম এ ফয়েজ, জাহিদুল ইসলাম, জায়েদ হাসান এবং সাইফুল হক তাজ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, খালেদা জিয়ার মুক্তি ও ক্যাম্পাসে সহাবস্থানের দাবিতে স্লোগান দিয়ে সকাল ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সামনে থেকে একটি মিছিল বের করে ছাত্রদল। মিছিলটি শান্ত চত্বরের কাছে পৌঁছলে পেছন থেকে ধাওয়া করেন জবি শাখা ছাত্রলীগের কর্মীরা। পরে মূল ফটকের সামনে ছাত্রদলের কয়েকজন পড়ে যান। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদল নেতা আব্দুর রশিদসহ অন্তত দুইজনকে বেধড়ক মারধর করতে দেখা যায়।

ঘটনার পর জবি ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সাদিকুর রহমান সাদিক বলেন, ক্যাম্পাসে সহাবস্থানের দাবিতে আমরা শান্তিপূর্ণ মিছিল শুরু করি। হঠাৎ পেছন থেকে শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আমাদের ওপর হামলা চালায়। এতে আমাদের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তিনি এ হামলার তীব্র প্রতিবাদ জানান। একইসঙ্গে ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

জবি ছাত্রলীগের আহ্বায়ক (সম্মেলন প্রস্তুত কমিটি) আশরাফুল আলম টিটন বলেন, ‘ক্যাম্পাসে বুড়ো ও অছাত্রদের কোনো স্থান হবে না। দলীয় কার্যক্রমের নাম দিয়ে কেউ অশান্ত পরিবেশ তৈরির চেষ্টা করলে আমরা বসে থাকবো না।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, ‘সকালে ছাত্রদল কর্মীরা মিছিল করলে ছাত্রলীগের হামলায় একজন গুরুতর আহত হয়। তার নিরাপত্তার কথা ভেবে আমরা প্রথমে তাকে প্রক্টর অফিসে নিয়ে আসি এবং পরবর্তীতে তাকে পুলিশের সহযোগিতায় মিটফোর্ড হাসপাতালে পাঠানো হয়।’

Loading...