পেঁয়াজের কেজি ১০০ টাকা রাখায় ১ লাখ ২০ হাজার জরিমানা

১১:২৮ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৩, ২০১৯ স্পট লাইট

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক:cএকদিকে অভিযান চলছে অন্য দিকে দাম না কমিয়ে আগের চেয়ে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা।

এ অবস্থায় বৃহস্পতিবারও জরিমানা গুনতে হয়েছে ব্যবসায়ীদের। পেঁয়াজের কেজি ১০০ টাকা রাখায় ১ লাখ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে তিনজন ব্যবসায়ীকে।

তবে সাধারণ ক্রেতারা বলছেন, এসব জরিমানা এক ট্রাক পেঁয়াজ বেশি দামে বিক্রি করে উশুল করে নেবেন ব্যবসায়ীরা। বাস্তবে কারও কথাই শুনছেন না তারা।

স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, গত কয়েকদিন ধরে খুলনার সব বাজারে ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। খুলনার বড় বাজারের পাইকারি ব্যবসায়ীরা খুচরা ব্যবসায়ীদের কাছে ৮০ টাকা দরে বিক্রি করছেন।

এরই প্রেক্ষিতে বুধবার খুলনার বড় বাজারের পাইকারি বাজারে অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানের সময় কেজিতে ২০ টাকা করে দাম কমিয়ে দেন ব্যবসায়ীরা। এতে ক্রেতাদের মধ্যে একটু হলেও স্বস্তি ফিরে আসে। কিন্তু ভ্রাম্যমাণ আদালত বাজার থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পরপরই আবার ৭৫ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করেন ব্যবসায়ীরা।

অথচ বাজারের বিভিন্ন ব্যবসায়ীর দোকানে বিপুল পরিমাণ পেঁয়াজ মজুত রয়েছে। রোজার সময় বা অন্য সময় দাম বৃদ্ধি করতে না পারার ক্ষতি এখন পুষিয়ে নিতেই পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি করেছেন বলে বাজারের একাধিক ব্যবসায়ী জানান।

পেঁয়াজের দাম আবারও বৃদ্ধির খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন নিজেই ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন। এ সময় অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় তিন ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়।

নগরীর বড়বাজারের স্টেশন রোডে পেঁয়াজের বাজারে অভিযান চলাকালে অতিরিক্ত ১০০ টাকায় পেঁয়াজ বিক্রি করায় মা বাণিজ্য ভান্ডারের মহিউদ্দিনকে ৫০ হাজার টাকা, মেসার্স সোনালী টেড্রার্সের বাপ্পীকে ৬০ হাজার টাকা এবং তাজ ট্রেডিংয়ের মালিক আলী আহমেদকে ১০ হাজার টাকা জরিমান করা হয়।