সহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে নেপালের স্পিকার গ্রেফতার

২:২১ অপরাহ্ণ | সোমবার, অক্টোবর ৭, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- নারী সহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে নেপালের সদ্য সাবেক স্পিকার কৃষ্ণা বাহাদুর মাহারাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে কাঠমাণ্ডুর একটি আদালত বাহাদুর মাহারার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

নেপালি টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গতকাল সন্ধ্যায় সদ্য বিদায়ী এই স্পিকারের সরকারি বাসভবনে পুলিশের কিছু পিকআপ ভ্যান পৌঁছায়। এরপর মামলাটির তদন্তের স্বার্থে তাকে হেফাজতে নেয় পুলিশ।

তবে মাহারা পুলিশ ভ্যানে উঠতে অস্বীকার করায় একটি প্রাইভেটকারে করে তাকে থানায় নেওয়া হয়।

এর আগে তার বিরুদ্ধে ওঠা ধর্ষণের অভিযোগ তদন্তের স্বার্থে গত মঙ্গলবার নিজ পদ থেকে সরে দাঁড়ান কৃষ্ণা বাহাদুর। তবে শুরু থেকেই তিনি ধর্ষণের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন।

গত রোববার কৃষ্ণা বাহাদুর মদ্যপ অবস্থায় ওই নারীকে ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ওই নারী বলেন, নির্যাতনের আগেই তার বাড়িতে মাতাল হয়ে আসেন কৃষ্ণ বাহাদুর।

স্থানীয় গণমাধ্যমকে ওই নারী বলেন, ‘আমি কখনো ভাবিনি এমন কিছু ঘটবে। তিনি জোর করে আমার অ্যাপার্টমেন্টে ঢুকে পড়েন। তিনি আমাকে জোর করে… আমি পুলিশ ডাকার কথা বললে তিনি বেরিয়ে যান।’

কাঠমাণ্ডু পুলিশ প্রধান উত্তম সুবেদি বলেন, ‘ওই নারী রাজধানী কাঠমাণ্ডুতে নিজের অ্যাপার্টমেন্টেই ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন। তার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ স্পিকারের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে।’

তবে কৃষ্ণা বাহাদুরের সহযোগী অভিযোগ অস্বীকার করে মঙ্গলবার সকালে একটি বিবৃতি দেন। বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘এটা স্পিকারের চরিত্র হননের অপচেষ্টা।’

নেপালে যুগ যুগ ধরে চলা গৃহযুদ্ধ থামাতে ২০০৬ সালে মাহারা মাওবাদীদের হয়ে অন্যতম প্রধান আলোচকের ভূমিকা পালন করেছেন। ২০১৭ সালের নির্বাচনের পর তিনি স্পিকার নির্বাচিত হন।

Loading...