• আজ ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘আমি ঈশ্বরের বিশেষ সন্তান, আমার একটাই ধর্ম’

১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, অক্টোবর ১৪, ২০১৯ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক- বিয়ের পর প্রথম পূজা। আর তাই জমিয়ে আনন্দ করেছেন টালিউড অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। ষষ্ঠী থেকেই মেতেছিলেন পূজার আনন্দে। অষ্টমীর সকালে অঞ্জলি দেওয়া থেকে শুরু করে কোমরে শাড়ি গুঁজে ঢাক বাজানো কিছুই বাদ দেননি তিনি। ত্রয়োদশীর দুপুরে স্বামী নিখিলের সঙ্গে সিঁদুর খেলায়ও মাততে দেখা গেছে।

এছাড়া দুর্গার সামনে নিখিল রাঙিয়ে দিয়েছেন নুসরাতের সিঁথি। হিন্দু রীতি-নীতি পালনের জন্য সমালোচকদের নজরে অভিনেত্রী। তার বিরুদ্ধে ফতোয়া দিয়েছেন ভারতের আলেম সমাজ। ধর্ম নিয়ে বিতর্ক না ছড়িয়ে যেকোনও একটি ধর্ম মানার পরামর্শ দিচ্ছেন তারা।

তবে নুসরাত ধির মস্তিষ্কে সব বিতর্কের জবাব দিচ্ছেন। তিনি সব ধর্মকে সম্মান করেন ও পশ্চিমবঙ্গে বড় হয়ে ওঠার জন্য ঈদ ও দু‌র্গাপুজা সমানভাবেই পালন করেন বলে জানান।

সম্প্রতি পূজা মণ্ডপে গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিতর্কে পাত্তা দেই না। আমি ঈশ্বরের বিশেষ সন্তান। আমার একটাই ধর্ম। তা হলো মানবতা।

এর আগে ইত্তেয়াস ওলেমায়ে সহ সভাপতি মুফতি আসাদ কাসমি অভিনেত্রী তথা রাজনীতিবিদ নুসরতকে উদ্দেশ্য করে বলেন যে, নুসরত তাঁর কাজ দ্বারা ‘ইসলাম ও মুসলমানদের অপমান’ করছেন। তাঁর নাম এবং ধর্ম পরিবর্তন করা উচিত।

মুফতি আসাদ বলেন, “এটি কোনও নতুন বিষয় নয়। যদিও ইসলাম তার অনুসারীদের কেবলমাত্র আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করার আদেশ দেয়, তা সত্ত্বেও তিনি হিন্দু দেবদেবীদের কাছে পুজো দিচ্ছেন। তিনি যা করেছেন তা ‘হারাম’ (পাপ)।”

তিনি আরও বলেন, “তিনি ধর্মের বাইরে বিবাহও করেছেন। তাঁর নাম ও ধর্ম পরিবর্তন করা উচিত। ইসলামে এমন লোকের দরকার নেই যারা মুসলিম নাম ধরে রাখেন এবং ইসলাম ও মুসলমানদের কলুষিত করেন।”

দুর্গাপুজো চলাকালীন, লাল শাড়ি পরে নুসরত জাহানকে তাঁর স্বামীর সঙ্গে সুরুচি সংঘের মণ্ডপে ঢাক বাজিয়ে নাচতে দেখা যায়। নিখিল জৈনের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে এই দম্পতির একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়, তাতে ক্যাপশনে নিখিল লেখেন, “এই প্রথমবার আমার অপরূপা স্ত্রীর সঙ্গে পুজোয় ঢাক বাজাচ্ছি।”

পুজোর পর সাংবাদিকদের নুসরত জাহান বলেন যে, তিনি ধর্মীয় সম্প্রীতি বাড়াতেই চেয়েছিলেন। “আমি মনে করি সকল ধর্মের প্রতি আমার সম্প্রীতির চিত্র তুলে ধরার নিজস্ব নিজস্ব পদ্ধতি রয়েছে। বাংলায় আমার জন্ম ও বেড়ে ওঠা, আমি মনে করি সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে অনুসরণ করেই আমি সঠিকভাবে কাজ করছি। এখানে, আমরা সমস্ত ধর্মীয় উত্সবই উদযাপন করি,” বলেন নুসরত।

Loading...