• আজ ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির সাবেক ৭ এমডিসহ ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

৮:৪৯ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৫, ২০১৯ রংপুর
borpo

শাহ্ আলম শাহী,স্টাফ রিপোর্টার,দিনাজপুর: দিনাজপুর বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে কয়লা চুরির ঘটনায় সাবেক ৭ এমডিসহ ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার চার্জশীট আমলে নিয়ে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারী করেছে আদালাত।

আজ মঙ্গলবার (১৫ অক্টোব) বিকেলে দিনাজপুর জেলা ও দায়রা জজ আজিজ আহমদ ভুঞা চার্জশীঠ আমলে নিয়ে এই গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেন। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) দিনাজপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের মামলা পরিচালনার দায়িত্বে নিয়োজিত পাবলিক প্রসিকিউটর এ্যাডঃ এম. আমিনুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, এই চাঞ্চল্যকর মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ বিষয়ে শুনানি শেষে বিচারক মামলার অভিযোগপত্রের তালিকাভুক্ত বড়পুকুরিয়ার সাবেক ৭ এমডিসহ ২৩ আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারীর আদেশ প্রদান করেন। আগামী ধার্য তারিখের মধ্যে চার্জশীটভুক্ত ২৩ আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করার জন্য আসামীদের সংশ্লিষ্ট ঠিকানায় থানা পুলিশ কর্মকর্তাকে আদেশ প্রদান করা হয়।

অভিযোগপত্রের তালিকায় রয়েছেন বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি প্রকল্পের সাবেক ৭ জন এমডিসহ ২৩ জন আসামী। এরা হলেন সাবেক এমডি মোঃ মাহবুবুর রহমান, মোঃ আব্দুল আজিজ খান, প্রকৌশলী খুরশিদ আলম, প্রকৌশলী কামরুজ্জামান, মোঃ আনিসুজ্জামান, প্রকৌশলী এসএম নুরুল আওরঙ্গজেব ও প্রকৌশলী হাবিব উদ্দীন আহমেদ।

গত ২০০৬ সালের জানুয়ারী মাস থেকে ২০১৮ সালের ১৯ জুলাই পর্যন্ত ১ লাখ ৪৩ হাজার ৭২৭ দশমিক ৯২ মেট্রিক টন কয়লা চুরি হয় বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে। যার আনুমানিক মূল্য ২৪৩ কোটি ২৮ লাখ ৮২ হাজার ৫০১ টাকা ৮৪ পয়সা। এই ঘটনায় বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানীর ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মোঃ আনিসুর রহমান বাদী হয়ে ২০১৮ সালের ২৪ জুলাই ১৯ জনের নাম উল্লেখ করে পার্বতীপুর থানায় মামলা করেন। মামলাটি দুদকের তফশীলভুক্ত হওয়ায় দুদক কার্যালয়ে হস্তান্তর করা হয়।

দুদক তদন্ত শেষে এক বছর পর ২৪জুলাই ২০১৯ তারিখে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। সেই থেকে অভিযুক্তরা আদালতে হাজির হয়নি। মঙ্গলবার (১৫ অক্টোব) দুপুরে মামলাটির শুনানী অনুষ্ঠিত হয়। শুনানী শেষে বিচারক মামলার চার্জশীটটি আমলে নিয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেন।

দিনাজপুর পুলিশ কোর্ট পরিদর্শক মোঃ আব্দুল মজিদ জানান, মামলা দায়েরের পর থেকে এই মামলায় কোন আসামী এখন পর্যন্ত জামিনের জন্য আবেদন না করায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি জারি করেন আদালত।

Loading...