এবার বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে আসছে নিরবের ‘বাংলাশিয়া ২.০’

১১:১৬ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, অক্টোবর ১৬, ২০১৯ বিনোদন

বিনোদন প্রতিবেদক, সময়ের কণ্ঠস্বর- পাঁচ বছর নিষিদ্ধ থাকার পর চলতি বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়ায় মুক্তি পেয়েছিল বাংলাদেশি নিরব হোসাইন অভিনীত প্রথম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র ‘বাংলাশিয়া ২.০’।

প্রথমদিন ১১১টি প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি মুক্তি পেলেও মালয়েশিয়ান দর্শকদের চাহিদা কারণে পরদিন তা বাড়িয়ে ১১৬ হলে মুক্তি দেওয়া হয়। মুক্তির পরই ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় নায়ক নিরবের ছবিটি মালয়েশিয়ার বক্স অফিসে ঝড় উঠে। ছবিটি দর্শক ও সমালোচকদের ব্যাপক প্রশংসা লাভ করে।

এদিকে মালেশিয়ায় মুক্তির ৮মাস পর ছবিটি এবার বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। চলচ্চিত্রটি মালে, চায়না, তামিল, থাই, ইংরেজি ভাষায় ডাবিং করা হলেও এবার সেটি বাংলা ভাষায় ডাবিং করা হচ্ছে।

জানা গেছে, চিত্র নির্মাতা অনন্য মামুনের প্রযোজনা সংস্থা অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্টের ব্যানারে ছবিটি বাংলাদেশে প্রদর্শিত হবে। সম্প্রতি তথ্য মন্ত্রণালয় এটি বাংলাদেশে প্রদর্শনের অনুমতি দিয়েছে। ছবিটি বাংলাদেশে মুক্তি দেয়ার সমন্বয়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ছবিটির নায়ক নিরব।

জানতে চাইলে তিনি সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, ছবিটি মুক্তির বিষয়ে এরই মধ্যে প্রস্তুতিমূলক কাজও শুরু হয়েছে। বর্তমানে ছবিটির বাংলা ভাষায় ডাবিংয়ের কাজ চলছে। অল্প সময়ের মধ্যেই ছবি সেন্সরে জমা দেয়া হবে। তারপর প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেয়া হবে।

‘বাংলাশিয়া ২.০’ ছবিতে নিরবের বিপরীতে অভিনয় করেছেন সিঙ্গাপুরের মুসলিম অভিনেত্রী আতিকা সোহাইমি। পরিচালনা করেছেন মালয়েশিয়ার নির্মাতা নেময়ুই। তিনি এর আগে পাঁচটি সিনেমা পরিচালনা করেছেন।

২০১৪ সালে মালয়েশিয়ান ফিল্ম সেন্সরশিপ বোর্ড ‘বাংলাশিয়া’ সিনেমাটি ব্যান করে দেয়। ছবির ৩১টি দৃশ্য মালয়েশিয়ার সরকারের বিপক্ষে যাওয়ায় সরকার ছবিটির ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। বেশ কিছু কাটছাঁটের পরে ১২ ফেব্রুয়ারি নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয় এবং ৯২ মিনিটের এ সিনেমাটির নাম দেয়া হয় ‘বাংলাশিয়া ২.০।’

মালয়েশিয়ায় মুক্তি না পেলেও সিনেমাটি নিউ ইয়র্ক এশিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল, ওসাকা ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল এবং সিঙ্গাপুর ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে দেখানো হয়েছে। ছবিটির দৃশ্যধারণের কাজ হয়েছে দেশটির পুচং, সেরামবান, কালাং, চায়না টাউন, পোর্টকালংসহ বিভিন্ন জায়গায়।

মালয়েশিয়ায় নানা ধরনের অপরাধ এবং প্রবাসীদের সঙ্গে অসদাচরণ নিয়ে ছবিটির গল্প। এখানে নিরবকে দেখানো হয়েছে বাংলাদেশ থেকে ভাগ্যের সন্ধানে মালয়েশিয়া যাওয়া এক যুবকের চরিত্রে। সে কখনো বাবুর্চি, কখনো আবার আকাশ ছোঁয়া দালানে চুনকাম করছে।

Loading...