এবার চমেক চিকিৎসকদের জন্য ‘নোবেল’ চাইলেন মেয়র নাছির

৭:২০ অপরাহ্ণ | বুধবার, অক্টোবর ১৬, ২০১৯ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর, চট্রগ্রাম- চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (চমেক) হৃদরোগ বিভাগের করোনারি কেয়ার ইউনিট ‘সিসিইউ-২’ উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার দুপুরের দিকে করোনারি কেয়ার ইউনিট ‘সিসিইউ-২’ উদ্বোধন করেন চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

সেখানেও ‘নোবেল পুরস্কার’ নিয়ে বক্তব্য দেয়ায় আবারও আলোচনায় এসেছেন মেয়র নাছির। এর আগে চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগের একটি মতবিনিময় সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘নোবেল পুরস্কারে’ বঞ্চিত করতে আবরার হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়ে থাকতে পারে বলে মন্তব্য করেছিলেন তিনি।

আজকের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ব্যস্ত এই চসিক হাসপাতালের চিকিৎসাসেবা চালু রাখার জন্য ডাক্তার ও নার্সদের নোবেল দেয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন চট্টগ্রাম সিটির এই মেয়র।

অনুষ্ঠানে মেয়র বলেন, “হাসপাতালের অনুমোদিত শয্যা সংখ্যা ১ হাজার ৩০০টি। এই ১৩শ’ শয্যার হাসপাতালে প্রতিদিন ওয়ার্ড ও আউটডোর মিলে ছয়-সাত হাজার রোগীকে সেবা দিতে হয়। এটা কি স্বাভাবিক বিষয়? আমি মনে করি যেসব ডাক্তার-নার্স এই সেবা দিচ্ছেন তাদের নোবেল পুরস্কার দেওয়া উচিত।”

প্রধান অতিথি মেয়র নাছির বলেন, “বিত্তশালী ধনবান লোকজন বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা করায় কিন্তু বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা করানোর সামর্থ্য আছে কতজনের? বেশিরভাগ মানুষের দেশের চিকিৎসকের ওপর নির্ভর করতে হয়। বড় খেলোয়াড়রা সব ম্যাচে ভালো খেলতে পারেন না। কারণ স্নায়ুচাপ। একজন ডাক্তার যদি রোগীর সেবা দিতে গিয়ে চাপ অনুভব করেন তখন চিকিৎসায় ভুল হওয়ার আশঙ্কা আরও বেড়ে যায়।”

মেয়র সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, “ধারণার ওপর নির্ভর করে সংবাদ পরিবেশন করলে মানুষের কাছে ভুল বার্তা যায়। আপনি যদি শতভাগ নিশ্চিত হন কোনও একজন ডাক্তারের ভুল চিকিৎসার কারণে এটা হয়েছে, তাহলে ওই ব্যক্তিকে টার্গেট করতে হবে। ওই ডাক্তারের বিরুদ্ধে আপনি কথা বলতে পারেন। তার বিরুদ্ধে সংবাদ পরিবেশন করতে পারেন। ঢালাওভাবে সব ডাক্তারের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করা উচিত নয়।”

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহসিন উদ্দিন আহমেদ, বিএমএ চট্টগ্রামের সভাপতি ডা. মুজিবুল হক খান, মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. নাসির উদ্দিন মাহমুদ, হৃদরোগ বিভাগের প্রধান ডা. প্রবীর কুমার দাশসহ বিভাগের শিক্ষক ও চিকিৎসকবৃন্দ।

Loading...