পুলিশের অভিযানে পদ্মায় সাড়ে ৬ লাখ মিটার জালসহ ১৯ জেলে আটক

২:৪২ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, অক্টোবর ১৮, ২০১৯ ঢাকা
padma

মো. রুবেল ইসলাম তাহমিদ,মাওয়া (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নদীতে জেলেরা মাছ শিকার করছে। প্রতিদিন জেলেদের আটক করে জেল জরিমানা করা হচ্ছে। মুন্সীগঞ্জের পদ্মানদীতে জেলা ও নৌ পুলিশ অভিযান চালিয়েছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১০ টা থেকে আজ শুক্রবার সকাল ৮ টা পর্যন্ত লঞ্চ, স্পীডবোট নিয়ে শতাধিক পুলিশ বাহিনীর সদস্য এ অভিযান চালিয়েছেন।

ঢাকা রেঞ্জ ডিআইজি মো. আতিকুল ইসলাম এর নেতৃত্বে অভিযানে সাথে ছিলেন এডিশনাল ডিআইজি মাহবুবুর রহমান, এডিশনাল ডিআইজি হারুন অর রশিদ, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম, শ্রীনগর সার্কেল এডিশনাল এসপি আসাদুজ্জামান, লৌহজং মৎস্য কর্মকর্তা ইদ্রিস আলী, ওসি লৌহজং আলমগীর হোসাইন, মাওয়া নৌ-ফাড়ী ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

মাওয়া নৌ-ফাড়ী উপপরিদর্শক জহুরুল ইসলাম জানান, দুই শতাধিক নৌকা ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহি অফিসার মো. কাবিরুল ইসলাম খানের অনুমতিক্রমে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেন। এছাড়া ১৯ জন জেলেকে ৩টি ট্রলার, সাড়ে ৬ লাখ মিটার মাছ ধরার জালসহ আটক করা হয়। এ সময় ২শত ২৫ কেজি মা ইলিশ জব্দ করা হয়। ১৯ জনের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এডিশনাল ডিআইজি মাহবুবুর রহমান জানান, সরাকার ঘোষিত মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান সারা দেশে চলছে। গতরাত ১০ টা থেকে অভিযান শুরু করি। ৯ তারিখ থেকে ৩০ তারিখ পর্যন্ত ২২ দিন মা ইলিশ মাছ সংরক্ষণ, আহরণ বিপনন নিষেধ। ৩৬ টি জেলায় আমরা অভিযান চালাচ্ছি। মাওয়া চরে ২৬ লাখ পরিত্যাক্ত জাল পাই সেগুলো মৎস্য কর্মকর্তা ম্যাজিস্ট্রেটের অনুমতিক্রমে পুড়িয়ে দিয়েছে। ১৯ জেলে সহ ২ শ কেজির মত মাছ উদ্ধার ও সাড়ে ৮ লাখ মিটার জাল নিয়ে এসেছি।

Loading...