• আজ ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ক্রিকেটাররা খেললে খেলবে, না খেললে নাই: পাপন

৪:৫৯ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, অক্টোবর ২২, ২০১৯ খেলা

স্পোর্টস আপডেট দেস্ক- দেশের ক্রিকেটের উন্নয়ন ও প্রসারে বিসিবিকে দেওয়া ক্রিকেটারদের ১১ দফায় কোনো দাবিই নেই বলে মন্তব্য করেছেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। আগের দিন দেওয়া ১১ দফার দাবির পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২১ অক্টোবর) বোর্ড মিটিং শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন তিনি।

বাংলাদেশের ক্রিকেটে বিদ্যমান ব্যবস্থা মেনে নিতে পারছে না বাংলাদেশ ক্রিকেটের সদস্যরা। ফলে অপ্রত্যাশিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ১১ দফা দাবি জানান জাতীয় দল ও জাতীয় দলের বাইরে থাকা ক্রিকেটাররা। আর এই দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা কোনো ধরনের ক্রিকেটে অংশ নেবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন।

ক্রিকেটারদের ধর্মঘট ডাকার পরদিনই অর্থ্যাৎ আজ দুপুরে জরুরি বৈঠকে বসেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালকরা। সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের নেতৃত্বে ওই বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলনে আসেন পাপন নিজেই। সেখানে তিনি স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন, ‘ক্রিকেটাররা দাবি-দাওয়া নিয়ে আগে কেন আমাদের কাছে গেল না। গেলেই তো সব দাবি আমরা পূরণ করে দিতাম।’

পাপনের মতে, বড় কোনো ষড়যন্ত্র হচ্ছে। যে ষড়যন্ত্রের কারণেই তারা বিসিবির কাছে দাবিগুলো না তুলে মিডিয়ার কাছে বলেছে। এতে তারা প্রাথমিকভাবে সফল হয়েছে। দেশের ক্রিকেটের ইমেজ নষ্ট করেছে। দেশের ইমেজ নষ্ট করেছে।

বিসিবি সভাপতি বলেছেন, ‘খেলোয়াড়রা যদি খেলতে না চায় তারা খেলবে না। এতে তাদের কী বেনিফিট আমি বুঝি না। দুদিন পর ক্যাম্প, তারা আসতে চাইলে আসবে। ভারতে যদি যেতে চায় তাহলে যাবে।’

বিসিবি সভাপতির মতে, এ আন্দোলনের পেছনে অন্য কোনো কারণ রয়েছে। তিনি বলেন, ‘টাকার জন্য ধর্মঘটে ক্রিকেটাররা, এটা বিশ্বাস করতে পারছি না। ধর্মঘটের পেছনে কোনো কারণ আছে। এগুলো একটা পরিকল্পনানার অংশ। ক্রিকেটের ইমেজ নষ্ট করতে তারা সফল হয়েছে।’

বিসিবি প্রধান বলেন, ‘এসব দাবি তুলে খেলা বন্ধ করবে তা হতে পারে না। ওরা আমাদের না জানিয়ে, আলোচনা না করেই এসব দাবি তুলেছে। ওরা আমাদের কিছুই জানালো না, কিন্তু মিডিয়াকে জানিয়ে দিল। ওরা জানে ওদের দাবির কথা জানালে আমরা মেনে নেব। এজন্য আমাদের কাছে আসেনি। ওরা আমার ফোন ধরে না, কেটে দেয়। এগুলো সব প্ল্যান। আমরা যেসব কাজ শুরু করেছি সেগুলোই ওরা দাবি করছে। আমি মনে করি ওদের অনেকে জানেই না আসলে আড়ালে কি হচ্ছে।’

Loading...