• আজ ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আসন্ন কমিটিকে ঘিরে সরগরম চরজব্বর ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রদল

২:১২ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, নভেম্বর ১, ২০১৯ চট্টগ্রাম
Student dhal News Pic

মো: ইমাম উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী প্রতিনিধি:  কিছুদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এবং মাঠে ময়দানে  সরগরম চরজব্বর ডিগ্রি কলেজ ছাত্রদল। ১৯৯২ সালের পর কাউন্সিলের মাধ্যমে কমিটি গঠিত হয়েছে জাতীয়বাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি। তারপরেই সারাদেশের সব শাখা কমিটি ডেলে সাজাতে চান কেন্দ্রীয় ছাত্রদল।

নোয়াখালী জেলা ছাত্রদলের নেতৃত্বের মধ্য দিয়ে নির্দেশ এসেছে নতুন ভাবে সাজাতে হবে নিষ্ক্রিয় সব সংগঠন কে। পালাবদলের এই উচ্ছাস এখন সুবর্ণচর উপজেলাতেও। বিএনপি যুবদল স্বেচ্ছাসেবক দল ছাত্রদলের সব শাখা পুনর্গঠন হবে বলে জানা গেছে।

এর অংশ হিসেবে দীর্ঘদিন নিষ্ক্রিয় থাকা চরজব্বর ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রদলের কর্মীদের মাঝে নেতৃত্বের সু-বাতাস বইছে। নিজেদের পক্ষে প্রচার কাজ চালাচ্ছেন প্রার্থীরা, পূর্বের চেয়েও এবার অধিক শক্তিশালী উপজেলা এবং কলেজ ছাত্রদলের নেতা কর্মিরা । প্রতিটিি কলেরেজ রয়েছে একাধিক প্রার্থী।

প্রার্থীদের তালিকায় আছেন সভাপতি পদে তিনজন, তারা হলেন আব্দুল্যাহ আল আরিফ,মামুনুর রশিদ জীবন ও রাজীব হোসেন। সাধারণ সম্পাদক- পদে আছেন দুই জন মোঃ হানিফ ও জিসান রহমান। এ ছাড়াও আরো অনেকে কাজ করছেন প্রার্থীতায় নিজেদের অবস্থান প্রকাশে।

নোয়াখালী জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আজগর উদ্দিন দুখু বলেন, “নতুন নেন্ত্রীত্ব সৃস্টির লক্ষ্যে খুব শিগ্রই আমরা সুবর্ণচর উপজেলায় কলেজ কমিটি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, অতিতে আমাদের নেতা কর্মিরা হামলা মামলার শিকার হয়েছেন। এবারে আমরা ত্যাগি সাহসি এবং চলমান ছাত্রদের নিয়ে কমিটি করার চিন্তা ভাবনা করছি এবং তা শিগ্রই হবে। দিন দিন ছাত্রদল সক্রিয় হচ্ছে,  আসছে নতুন মুখ। এদের থেকে বাচাই করে ব্যালটের মাধ্যমেই আমরা সঠিক নেত্রীত্ব গঠন করতে পারবে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সরকারের  দমন নিপিড়ন এবং ভোট ডাকাতির কারনে জনগন আজ অতিষ্ঠ,  দেশ এবং সমাজ পরিবর্তনে নতুন নেত্রীত্বের বিকল্প নেই”। পূর্বের অভিযোগ অনুযায়ী যারা মাঠে সক্রীয় তারা নাকি যারা সিনিয়র নেতাদের সাথে সু-সম্পর্ক তারা নেত্রীত্বে আসবেন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “অব্যশই আমরা মাঠে যারা সক্রীয়, ত্যাগি এবং বলিষ্ঠ তাদেরকে গুরুত্ব দিবো”।

নোয়াখালী জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসান মোঃ নোমান বলেন, “আমরা এখনো কেন্দ্রীয় কোন সিদ্ধান্ত পাইনি তবে খুব শিগ্রই আমরা কলেজ কমিটি করার কথা ভাবছি, সেক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় নির্দেশনা লাগবে, আলোচনার মাধ্যমে আমরা সেটি বিবেচনা করবো। আমরা আশাবাদি ছাত্রদলকে আমরা আরো শক্তিশালি করতে পারবো, এবং সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি”।

সুবর্ণচর উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি সাহাব উদ্দিন অনিক বলেন, “জেলা নেত্রীবৃন্দদের সাথে নতুন কমিটির বিষয়ে আমরা আলাপ আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি, আশা করছি ১/২ মাসের মধ্যেই আমরা নতুন কমিটি করতে সফল হবো, আমরা চাই ত্যাগি এবং সাহসিরা এগিয়ে নিবে ছাত্রদলকে। কোন অছাত্র কমিটিতে স্থান পাবে কিনা প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “ অছাত্ররা কেউ কলেজ কমিটিতে  আসার সুযোগ নেই , যারা বর্তমানে অধ্যায়নরত তাদের আমরা সিলেক্ট করবো। যাতে আমাদের কমিটি বিতর্কিত না হয় । পূর্বের ভূল থেকে শিক্ষা নিয়ে আমরা ছাত্রদলকে নতুন করে সাজাবো”।

সুবর্ণচর উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আলী আহসান মোঃ তারেক বলেন, “১ সপ্তাহের মধ্যেই আমরা কলেজ গুলোতে সদস্য ফরম বিতরণ করার একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ১ মাসের মাধ্যেই আমাদের কার্যক্রম শুরু হবে এবং আমরা সফল হবো।

অনেক নেতা-কর্মিরা দৌঁড়ঝাঁপ করছেন, লবিং করছেন, সোস্যাল মিডিয়ায় তারা নিজেদের মত প্রকাশ করছেন, অনেক প্রার্থী প্রচার প্রচারনাও চালাচ্ছেন। ছাত্রদল আগের চেয়েও অনেক শক্তিশালী, জেলা এবং কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তক্রমে আমরা কাজ পরিচালনা করবো।

ছাত্রদল হবে সমাজ পরিবর্তনের হাতিয়ার, আগে যারা কমিটিতে ছিলেন তাদেরকেও আমারা যথাযথ মূল্যায়ন করবো, এবং তাদের পরামর্শেও আমরা কাজ চালিয়ে যাবো”।

Loading...