• আজ ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘বিএনপির দুর্নীতিবাজদেরও ধরা হবে’- তথ্যমন্ত্রী

১১:৫৬ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, নভেম্বর ১, ২০১৯ জাতীয়
tottho

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির দুর্নীতিবাজ ও অপকর্মকারীদের এখনো ধরা হয়নি বলে তারা চলমান শুদ্ধি অভিযানকে আইওয়াশ বলছে। তাদের দলের অনেকেই আছে নানা অপকর্মের সঙ্গে জড়িত। সেই তালিকাও সরকারের কাছে আছে। তাদেরও ধরা হবে। দুর্নীতিবাজ কেউ রেহাই পাবে না।

শুক্রবার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নগরের ডিসি হিল প্রাঙ্গণে আয়োজিত বৌদ্ধ বিহারের শুভ কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এসব কথা বলেন।

বিএনপি নেতৃবৃন্দদের নিজেদের চেহারাগুলো একটু আয়নায় দেখার অনুরোধ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, নিজেদের মধ্যে যারা আছে তারা যেন সতর্ক থাকে। তারা নিশ্চয়ই ভবিষ্যতে বুঝতে পারবে এটি কোন দল মতের ঊর্ধ্বে নয়, এটি হচ্ছে যারা প্রকৃতপক্ষে অনিয়ম অনাচারের সঙ্গে যুক্ত আছে তাদের সবার বিরুদ্ধে অভিযান। প্রকৃতপক্ষে ক্যাসিনোসহ যারা নানা ধরণের অনিয়ম অনাচার ও অপকর্মের সঙ্গে জড়িত আছে তাদের সবার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, সাম্প্রদায়িক বিভাজন করলে যাদের সুবিধা হয় সেই সাম্প্রদায়িক অপশক্তি মাঝে মধ্যে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা তৈরি করে সম্প্রীতি বিনষ্ট করার অপচেষ্টা চালায়। তারই অংশ হিসেবে কক্সবাজারের রামু, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর, সাম্প্রতিক সময়ে ভোলার ঘটনা ঘটানো হয়েছে। শেখ হাসিনার সরকার সেগুলোকে কঠোর হস্তে দমন করেছে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ১৯৪৭ সালে যখন ধর্মের ভিত্তিতে অর্থাৎ সাম্প্রদায়িকতার ভিত্তিতে দেশ বিভাগ হলো- তখন আমরা বাঙালিরা উপলদ্ধি করতে পারলাম আমাদের মূল পরিচয় হচ্ছে বাঙালি। দেশ বিভাগের মধ্য দিয়ে এ মূল পরিচয়ের মধ্যে আঘাত করেছে রাষ্ট্র। রাষ্ট্র আমাদের বাঙালি, বাঙালিত্ব, বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির উপর আঘাত করেছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের প্রথম পরিচয় হচ্ছে আমি বাঙালি, দ্বিতীয় পরিচয় হচ্ছে আমি কোন ধর্মাবলম্বী। এখানে অনেকে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভোগে সে বাঙালি নাকি বাংলাদেশি। সেজন্য বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় বলেন, ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সবার।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

Loading...