‘সাকিব অপরাধ করেনি’ ভারতীয় সাংবাদিকের উদ্দেশে মাহমুদউল্লাহ

১০:৪৪ অপরাহ্ণ | শনিবার, নভেম্বর ২, ২০১৯ খেলা
mahmudullah-1541860765930

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক: আইসিসির দুর্নীতিবিরোধী নীতিমালার আইন লঙ্ঘনের অপরাধে সাকিব আল হাসানকে দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে আইসিসি। দুই বছরের মধ্যে এক বছর পুরোপুরি নিষিদ্ধ, আর বাকি ১ এক বছর স্থগিত নিষেধাজ্ঞা অর্থাৎ খেলতে পারবেন কিন্তু আবারও অপরাধ করলে শাস্তি পেতে হবে।

নিষেধাজ্ঞার কারণে সাকিবকে ছাড়াই ভারতের মাটিতে খেলতে হবে বাংলাদেশকে। রোববার (৩ নভেম্বর) দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে রোহিত শর্মাদের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ম্যাচ খেলবে তাদের। সেই ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনেও সাকিব ইস্যু নিয়ে কথা বলতেই হলো রিয়াদকে।

সংবাদ সম্মেলনে সাকিবের নিষিদ্ধ হওয়া নিয়ে ভারতীয় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মাহমুদউল্লাহ বলেন, আমরা সবাই-ই জানি, সাকিব বাংলাদেশের গ্রেট পারফরমার। পুরো বছরজুড়েই সে পারফর্ম করে। আমার মনে হয়, সে আমাদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। কিন্তু একটা ইস্যু তো তৈরি হয়ে গেছে। কি আর করা যাবে। তবে আমাদের এখনও সাকিবের প্রতি সমর্থন আছে। সে সম্ভবত একটা ভুল করে ফেলেছে, কিন্তু অপরাধ করেনি। আমরা তাকে এখনও সমর্থন করি, আগের মতোই তাকে ভালোবাসি। কিন্তু যেহেতু একটা ইস্যু তৈরিই হয়েছে। আমাদের কালকের ম্যাচ নিয়েই ভাবতে হবে। সেইসঙ্গে আমি মনে করি, তরুণদের জন্য এটা বড় সুযোগ নিজেদের প্রমাণ করার।

সাকিব না থাকায় নেতৃত্ব দিতে হবে দলকে। এটা কেমন বোঝা হবে মাহমুদউল্লাহর জন্য? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে টাইগার অলরাউন্ডার অবশ্য বোঝা শব্দটিতেই আপত্তি তুললেন।

রিয়াদ বলেন, যে শব্দটা বললেন-বোঝা। আমি তেমন করে ভাবতে চাই না। আমার জন্য দলকে নেতৃত্ব দেয়ার দারুণ একটা সুযোগ। আমি আগেও দলকে নেতৃত্ব দিয়েছে টেস্ট আর টি-টোয়েন্টিতে। কারণ সাকিব ইনজুরিতে ছিল। আমাদের এখন দল হিসেবে পারফর্ম করতে হবে। সবাইকে একসঙ্গে জ্বলে ওঠতে হবে। আমরা সেটা করতে প্রস্তুত।

প্রসঙ্গত আইসিসি’র দুর্নীতিবিরোধী আইনের তিনটি ধারা ভঙ্গ করায় তাকে এই শাস্তি পেতে হচ্ছে। তিনটি অভিযোগই মেনে নিয়েছেন সাকিব। শাস্তি নিয়ে সাকিব আইসিসির সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন। ২০২০ সালের ২৯ অক্টোবর থেকে ফের মাঠে ফিরতে পারবেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

Loading...