‘যারা বিএনপি করে তাদের মেরুদণ্ড আছে কিনা এটাই আমার সন্দেহ’

৬:২০ অপরাহ্ণ | রবিবার, নভেম্বর ৩, ২০১৯ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- যারা বিএনপি করে তাদের মেরুদণ্ড আছে কিনা সন্দেহ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার বিকেলে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে জেলহত্যা দিবসের এক আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি সরকারের অপকর্মের কারণেই দেশে ইমার্জেন্সি (জরুরি অবস্থা) জারি হয়েছিল। দেশি বিদেশি চাপ আসে; তারপর আমরা নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা গ্রহণ করি।

বিএনপির সমালোচনা করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, একটা দল; যার চেয়ারপারসন এতিমের টাকা আত্মসাতের মামলায় জেলে, এত নেতা থাকতে যে মামলায় সাজাপ্রাপ্ত তাকে বানাল ভারপ্রাপ্ত প্রধান। যারা বিএনপি করে তাদের মেরুদণ্ড আছে কিনা এটাই আমার সন্দেহ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘৭১ সালে পাকিস্তানি বাহিনী যে ঘটনা ঘটিয়েছে ২০০১ সালে সে ঘটনা আবারও হয়েছিল। দুর্নীতিতে পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। মানুষের ওপর অত্যাচার হয়েছে। দীর্ঘ সময় দেশের সেবা করতে পেরেছি বলে দেশে উন্নয়ন হয়েছে। মৃত ব্যক্তিকেও খালেদা জিয়া প্রমোশন দিয়েছেন। এ সময় তিনি ৬৩ জেলায় বোমা হামলার কথা উল্লেখ করে বলেন, সারা বাংলাদেশে বোমাহামলা হলেও একটি মাত্র জেলা মুন্সীগঞ্জে বোমা হামলা হয়নি। এমনকি গোপালগঞ্জেও বোমাহামলা হয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপির অবরোধ এখনও বহাল, তারা এখনও উঠায়নি। হরতাল দিয়েছে, অগ্নি সংযোগ করেছে, বাসে আগুন দিয়েছে, লঞ্চে আগুন দিয়েছে। এসব হামলায় অনেক মানুষ মারা গিয়েছে।

খালেদা জিয়াকে দেখে অনেকের মায়াকান্না। আমরা যারা ‘৭৫ সাল থেকে স্বজন হারা বেদনা নিয়ে আছি আমাদের জন্য কি মায়া লাগে না।

শেখ হাসিনা বলেন, ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এসে দেশের মানুষ স্বাধীনতা হারিয়েছিল। টানা আওয়ামী লীগের শাসনের মধ্য দিয়ে দেশ এখন স্বাধীনতার সুফল পাচ্ছে।

Loading...