• আজ ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গাছতলায় অফিস করছেন ঠাকুরগাঁও থানার ওসি!

২:২৯ অপরাহ্ণ | সোমবার, নভেম্বর ৪, ২০১৯ দেশের খবর, রংপুর

কামরুল হাসান, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: “থানায় মামলা বা জিডি করতে লাগেনা টাকা পয়সা” এ শিরোনামে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ভাইরাল হয় ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি আসিকুর রহমানের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। সে সময়ে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি সারাদেশব্যাপী।

এবার দালালের দৌরাত্ম্য হয়রানি ঠেকাতে অভিনব উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। থানার ফটকের সামনে খোলা আকাশে নিচে জনগণের দরবার সংবলিত ব্যানারে গাছের নিচে বসে অফিস করছেন আলোচিত এই কর্মকর্তা।

সোমবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গাছের নিচে চেয়ার টেবিল নিয়ে অফিস করছেন তিনি। সেখানে নির্বিঘ্নে সাধারণ মানুষ তাদের নানা অভিযোগ আর সমস্যার কথা জানাচ্ছেন থানার এই ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি)। অভিযোগনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন তিনি।

এ সময় থানায় আসা একাধিক ব্যক্তি বলেন, ‘এতোদিন পুলিশের বিষয়ে আমাদের একটা ভীতি ছিলো, এখন আর হয়তো ভীতি থাকবে না। এটা করায় আমরা খুবই খুশি হয়েছি।’ পুলিশের এমন পরিবর্তনকে আগামী দিনের একটি ইতিবাচক বার্তা হিসেবে দেখছেন স্থানীয়রা। শহরের হাজীপাড়া মহল্লার বাসিন্দা ও প্রবাসী।

ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মনির আহমেদ মানিক বলেন, সুনীতি এবং শৃঙ্খলা বজায় রেখে ওসি স্যার যেভাবে জনগণের সেবা করছে, তা সত্যিই প্রশংসনীয়।

সুশীল সমাজের ব্যক্তিরা বলছেন,আমরা বাংলাদেশে এমন পুলিশই তো চাই, যারা ভয়ভীতি ছাড়ায় পুলিশি সেবা জনগণের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দেওয়ার জন্য নিরলসভাবে ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে যাবে। ওসি সাহেব যেভাবে খোলা আকাশের নিচে অফিস করে জনগণের সেবায় সরাসরি নিয়োজিত হচ্ছেন এতে সমাজে বড় ধরনের কোনো অপরাধ ঘটাতে অপরাধী হাজারবার চিন্তা করবে।

এ বিষয়ে ওসি আসিকুর রহমানের সঙ্গে কথা হয় এ প্রতিবেদকের। ওসি জানান, পুলিশে সঙ্গে জনসম্পৃক্ততা বাড়াতে আমার এই প্রচেষ্টা। পুলিশের মূল কাজ মানুষের মনে স্থান করে নেয়া। পুলিশ-ভীতি দূর করে মানুষের আস্থা অর্জনই আমার স্বার্থকতা।

ওসি বলেন,আমরা জনগণের সেবক। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আমরা দেশের কল্যাণে কাজ করে যাব। যাতে সকল শ্রেণির পেশাজীবী মানুষ সমান ভাবে আইনগত সমান অধিকার লাভ করতে পারেন।

Loading...