সংবাদ শিরোনাম
‘নেত্রীর মুক্তির জন্য আজ মানববন্ধনে, এর চেয়ে লজ্জার কিছু নেই’ | কোটালীপাড়ায় অর্ধশতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার | দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় বিশ্বে দ্বিতীয় ঢাকা | বুকের বাম দিকে ব্যথার যত কারণ | করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৪৫৮, আক্রান্ত ৭৭ হাজার | হ্যাঁ আমি বিবাহিত, আমার দুই সন্তানও রয়েছে: সাইমন | যুবলীগ নেত্রী পাপিয়া প্রতিদিন বারের বিলই দিতেন আড়াই লাখ টাকা | অতিথি পাখির কিচিরমিচির শব্দে মুখরিত ঘাটাইলের চাপরাবিল | নবীগঞ্জে সাংবাদিক ফোরামের কমিটি গঠন: সভাপতি সেলিম, সম্পাদক মতিউর মুন্না | নির্ভীক সাংবাদিকতার মাধ্যমে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করতে হবে: রমেশ চন্দ্র সেন |
  • আজ ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গৃহকর্মীর ভিজিটিং কার্ডের ছবি ভাইরাল!

১১:২৬ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, নভেম্বর ৮, ২০১৯ চিত্র বিচিত্র

চিত্র-বিচিত্র ডেস্ক :: ভারতের মহারাষ্ট্রের পুণের ভাবধন এলাকায় মানুষের বাড়িতে কাজ করেন গীতা কালে নামে এক নারী। সম্প্রতি তার ভিজিটিং কার্ডের ছবি ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এরপরই রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে গেছেন ‘ঘর কাম মসি ইন ভাবধন’।

এক খবরে আনন্দবাজারের মাধ্যমে জানা যায়, ভাইরাল হওয়া সেই কার্ডে লেখা রয়েছে গীতার নাম ও ফোন নম্বর। তার নীচে লেখা আছে কাজের বিবরণ ও প্রতিমাসে সেই কাজের রেট। যেমন ঝাড়ু-পোছা ও কাপড় ধোয়ার মতো কাজের জন্য প্রতি মাসে ৮০০ টাকা নেন গীতা। রুটি তৈরির জন্য নেন মাসে এক হাজার টাকা। এছাড়া অন্যান্য গৃহস্থালীর কাজও করতে প্রস্তুত গীতা।

তবে গীতার ইন্টারনেট সেনসেশন হওয়ার পেছনে অবদান আছে ধনশ্রী শিন্ড নামে এক তরুণীর। ধনশ্রীর বাড়িতে কাজ করেন গীতা। একদিন অফিস থেকে ফিরে ধনশ্রী দেখেন মনমরা হয়ে বসে আছেন গীতা। কারণ জোনতে চাইলে গীতা বলেন, একটি বাড়ির কাজ চলে গেছে। এ কারণে মাসে চার হাজার টাকা রোজগার কমে গেছে তার। সেই শুনে নিজের ব্রান্ডিং স্কিলকে কাজে লাগিয়ে ভিজিটিং কার্ডের নকশা বানিয়ে দেন ধনশ্রী। ১০০টি কার্ডও ছাপিয়ে আনেন। আর তার আবাসনের নিরাপত্তারক্ষীর সহায়তায় ভাবধন এলাকায় ছড়িয়ে দেন সেই কার্ড।

ছবি-সহ এই ঘটনার কথা সম্প্রতি নিজের ফেসবুক পোস্টে শেয়ার করেছেন অস্মিতা জাভেড়কর। তারপরই ভাইরাল হয়েছে সেই পোস্ট। কার্ডের ছবি ভাইরাল হতেই ফোনের বন্যায় ভেসে যাচ্ছেন গীতা। পুণে ছাড়িয়ে ভারতের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কাজের জন্য ফোন আসছে গীতার কাছে।

Loading...