সংবাদ শিরোনাম
ইরানের সঙ্গে বন্ধুত্বের ৭০ বছর পূর্তি পালন করবে ভারত | রংপুরে ব্যবসায়ীকে অপহরণ, পুলিশসহ গ্রেফতার ৩ | আন্তর্জাতিক সীমানা আইন লঙ্গনঃ বঙ্গোপসাগর থেকে ২৬ ভারতীয় জেলে আটক | ‘৩ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে এসএসসি পরীক্ষা’- শিক্ষা মন্ত্রণালয় | আন্দোলনের মুখে পেছাল ঢাকা সিটি নির্বাচন, ভোটগ্রহণ ১ ফেব্রুয়ারি | ধর্ষণ মামলায় কারাগারে: এখনো স্বপদে বহাল টাঙ্গাইলের সেই ছাত্রলীগ নেতা | তরুণদের জন্য আজহারীর আবেগঘন ফেসবুক স্ট্যাটাস | ওষুধ সেবনে পুরুষের স্তন বৃদ্ধি, জরিমানা ৭০ হাজার কোটি টাকা! | ‘আল্লাহর ওয়াস্তে ইভিএম বাদ দিন’- ঐক্যফ্রন্ট | ‘গত এক বছরে খাদ্য মন্ত্রণালয়ে দুর্নীতি হয়নি’- খাদ্যমন্ত্রী |
  • আজ ৫ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘রায়ে সত্যির জয় হয়নি, খয়রাতির ৫ একর জমি মুসলমানরা চায় না’

৬:২৯ অপরাহ্ণ | শনিবার, নভেম্বর ৯, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ভারতে বহুল আলোচিত বাবরি মসজিদ মামলার রায় দিয়েছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। এই রায়ের ফলে বিতর্কিত সেই জমিতে রাম মন্দির নির্মাণ করতে পারবেন হিন্দুরা। অপরদিকে মসজিদ নির্মাণের জন্য মুসলিমদের পাঁচ একর জমি দিতে চেয়েছেন আদালত। তবে এই জমি নিতে আপত্তি জানিয়েছেন অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমেন (এআইএমআইএম) প্রেসিডেন্ট আসাদউদ্দিন ওয়াইসি।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি এই রায়ে সন্তুষ্ট নই। রায়ে বাস্তব সত্যির জয় হয়নি। আমরা আমাদের আইনি অধিকারের জন্য লড়ছি। একই সঙ্গে তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, সুপ্রিম কোর্ট মুসলিমদের যে খয়রাতির ৫ একর জমি দিতে চেয়েছে, তা তাঁদের চায় না।

ওয়াইসি বলেন, এমনি মানুষের কাছে চাইলেই মুসলিমরা ৫ একর পেয়ে যাবে। সরকারের খয়রাতির প্রয়োজন নেই। হায়দরাবাদের সাংসদের বক্তব্য, “আমরা আমাদের আইনি অধিকারের জন্য লড়ছি। ভারতের মুসলমানদের এতটা খারাপ দিনও আসেনি যে খয়রাতির জমি নিতে হবে। আমরা যদি এভাবেই ভিক্ষা করতে থাকি তাহলে তাহলে এগোতে পারব না। মুসলিম বোর্ড কি সিদ্ধান্ত নেবে সেটা তাঁদের সিদ্ধান্ত। তবে আমার মত হচ্ছে, ভূমি দানের এই প্রস্তাব আমাদের প্রত্যাখ্যান করা উচিত।”

কংগ্রেসকে আক্রমণ করে ওয়াইসি বলেন, “আজ কংগ্রেস তাদের আসল রং দেখিয়ে দিল। কংগ্রেস শুধু প্রতারণা ও ভণ্ডামি করে। ১৯৪৯ সালে কার আমলে সেখানে মূর্তি বসানো হয়েছিল? রাজীব গান্ধী যদি মন্দিরের দরজা না খুলতেন তবে এখনও সেখানে মসজিদ থাকত। নরসিমহা রাও যদি নিজের কর্তব্য পালন করতেন তবে এখনও সেখানে সমজিদ থাকত।”

Loading...