অবশেষে দেশে ফিরছেন সৌদিতে নির্যাতনের শিকার সুমি

১১:৩৪ অপরাহ্ণ | সোমবার, নভেম্বর ১১, ২০১৯ আলোচিত বাংলাদেশ
sumi

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ সৌদি আরবে নির্যাতনের বর্ণনাসহ ভিডিও ভাইরাল হওয়া সুমি আক্তার দেশে ফেরার ‘ফাইনাল এক্সিট’ পেয়েছে।

সৌদি আরবের জেদ্দায় অবস্থিত বাংলাদেশ কনস্যুলেটের আবেদনের প্রেক্ষিতে দাবি মঞ্জুর করেছে দেশটির শ্রম আদালত। একই সঙ্গে আদালত সুমির নিয়োগ বাবদ তার নিয়োগকর্তার দাবি করা ২২ হাজার সৌদি রিয়েল পরিশোধের আবেদন নামঞ্জুর করেন।

ফলে দেশে ফিরতে আইনি আর কোনো বাধা রইলো না সুমির। আগামী সপ্তাহের মধ্যেই তিনি দেশে ফিরতে পারবেন বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

রোববার (১০ নভেম্বর) নাজরান শহরের শ্রম আদালতে এ বিষয়ক এক শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। সুমি আক্তার, সৌদিতে তার নিয়োগকর্তা (কফিল) ও কনস্যুলেট প্রতিনিধি এসময় উপস্থিত ছিলেন।

শুনানিতে কনস্যুলেট’র আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সুমিকে ‘ফাইনাল এক্সিট’ দেওয়ার দাবি মঞ্জুর করেন শ্রম আদালত। একই সঙ্গে আদালত সুমির নিয়োগবাবদ তার নিয়োগকর্তার দাবি করা ২২ হাজার সৌদি রিয়েল পরিশোধের আবেদন নামঞ্জুর করেন।

এর আগে সুমির নিয়োগকর্তা অর্থের বিনিময়ে তাকে ‘কিনে’ নেওয়ার দাবি জানান, এবং সৌদি আরব থেকে তার বের হওয়ার অনুমতি (এক্সিট) দিতে ২২ হাজার রিয়াল ক্ষতিপূরণ দাবি করেন। এতে করে সুমির দেশে ফেরা নিয়ে আইনি জটিলতার সৃষ্টি হয়। কিন্তু এবারে তা কেটে গেল।

সম্প্রতি নির্যাতনের শিকার সুমির ভিডিও বার্তা ভাইরাল হলে দূতাবাসের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করে সৌদি পুলিশ। পরে জেদ্দার বাংলাদেশ দূতাবাস সৌদি শ্রম আদালতে এ বিষয়ক একটি শুনানির আয়োজন করে।

সুমির দেশে ফেরার আইনি জটিলতা কেটে যাওয়ায় একটি চিঠি ইস্যু করেছেন জেদ্দা কনস্যুলেটের প্রথম সচিব কে এম সালাহ উদ্দিন।

চিঠিতে বলা হয়েছে, শ্রম আদালতের নির্দেশের পর তাৎক্ষণিকভাবে সুমি আক্তারকে ‘ফাইনাল এক্সিট’ দেন তার বর্তমান নিয়োগকর্তা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ‘ওয়েজ অর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের অর্থায়নে জেদ্দা কনস্যুলেটের প্রচেষ্টায় শিগগিরই সুমিকে বাংলাদেশে পাঠানোর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন আছে।

Loading...