স্ত্রীর মৃত্যুর খবর পেয়ে ট্রেনের সামনে ঝাঁপ স্বামীর!

২:২৩ অপরাহ্ণ | বুধবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে স্ত্রী নমিতা মণ্ডলের (৪০)। সেই খবর পাওয়ার পরেই চলন্ত ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিলেন স্বামী ভীম মণ্ডলও (৪০)। গত সোমবার ভারতের মুর্শিদাবাদের নশিপুরে মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের বরাতে আনন্দবাজার জানায়, প্রায় সতেরো বছর আগে চুনাখালির বাসিন্দা নমিতার সঙ্গে লালবাগের রনসাগারের বাসিন্দা, পেশায় রাজমিস্ত্রি ভীম মণ্ডলের বিয়ে হয়। তাঁদের ১৬ বছরের ছেলে ও ১৪ বছরের মেয়ে রয়েছে।

অভিযোগ, ভীম মাঝেমধ্যেই মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরতেন। এটা একদমই পছন্দ করতেন না নমিতা। রবিবার নমিতার দাদার ছেলের জন্মদিন উপলক্ষে চুনাখালিতে নিমন্ত্রণ ছিল সকলের। সেখানে যাওয়ার জন্য দুপুরে উপহারও কিনে আনেন ভীম। তারপরে বিকেলে বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যান ভীম। সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফেরেন তিনি। বাড়ি ফিরে নমিতা নিয়ে তিনি অনুষ্ঠান বাড়ি যাওয়ার তোড়জোড় শুরু করেন।

সেই সময় ভীম ও নমিতার কথা কাটাকাটি শুরু হয়। পরে চরমে ওঠে বিবাদ। রবিবার সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ বাড়িতে কেউই ছিলেন না। ছেলে মেয়ে ওই সময় টিউশন নিতে গিয়েছিল।  ওই সময় রাগের মাথায় নমিতার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন ভীম।

পরে ভীম ও স্থানীয় লোকজন নমিতাকে উদ্ধার করে লালবাগ মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সোমবার সকালে সেখানেই মৃত্যু হয় নমিতার।

নমিতার মৃত্যু হয়েছে— এই খবর শোনার পরেই নশিপুর সংলগ্ন কলাবাগান এলাকায় সকাল ১০টা নাগাদ ৫৩১৭৮ ডাউন লালগোলা শিয়ালদহ প্যাসেঞ্জার ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন ভীম।

Loading...