‘শিগগিরই শুরু হবে আবরার হত্যার বিচারকাজ’- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

৪:০৫ অপরাহ্ণ | বুধবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৯ জাতীয়
sors

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, ‘বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যা মামলায় আমাদের তদন্ত সংস্থা পুলিশ বাহিনীর মাধ্যমে যে চার্জশিট দিয়েছে, তা নির্ভুল হয়েছে। আশা করছি শিগগিরইই এই বিচারকাজ শুরু হবে।’

বুধবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে মহান বিজয় দিবস (১৬ ডিসেম্বর) উদযাপন উপলক্ষে সার্বিক আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আগেই বলেছি আমরা নির্ভুল চাজর্শিট দেয়ার জন্য আমরা প্রচেষ্টা নেব। বিচারের বিষয়টি পুলিশের অধীনে নয়, বিচার আদালত করবে। তবে খুব শিগগিরই এর বিচার হবে, আমরাও আশা করছি।’

পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘পলাতকদের গ্রেফতারের প্রচেষ্টা চলছে। আমাদের কাছে তথ্য থাকলে তাদের ধরে ফেলতাম। তবে বাইরে (দেশের বাইরে) বের হওয়ার কোনও সুযোগ নেই। আমাদের ঘরের কোনোখানে আশ্রয় প্রশ্রয়ে হয়তো আছে, আমরা ধরে ফেলবো।’

সড়ক আইন বাস্তবায়ন প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সড়ক বিভাগের মন্ত্রী বলেছেন কিছুদিন আইনটি সম্পর্কে সবাইকে জানানো হচ্ছে। সময়মতো তিনি আইনটি প্রয়োগে আমাদের নির্দেশনা দেবেন। দেশের মানুষের মধ্যে আইন মেনে চলার প্রচেষ্টা রয়েছে। বিআরটিএতে ভিড় লেগে গেছে। কারণ জনগণকে বুঝালে তারা আইন মানার চেষ্টা করে।’

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সড়ক পরিবহনের আইন নিয়ে কাজ করতে কতটা প্রস্তুত জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ট্রাফিক পুলিশের যে দায়িত্বটি, তারা তা সম্পূর্ণভাবেই পালন করছে। তাদের মধ্যে আন্তরিকতার অভাব নেই, প্রচেষ্টায়ও দুর্বলতা দেখছি না। পৃথিবীর সব জায়গায়ই যানজট হয়, বাংলাদেশের যানজটের জন্য বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা রয়েছে। পর্যায়ক্রমে যানজট সমস্যার সমাধান হবে আশা করি।’

দুর্নীতি বিরোধী অভিযান প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘কোন অভিযান থেমে নেই। অভিযান চলছে ও চলবে। তথ্যভিত্তিক অভিযান চালানোর জন্য আমরা নিরাপত্তা বাহিনীকে নির্দেশনা দিয়েছি। যেখানেই তথ্য পাচ্ছি, সেখানেই ধরা হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় আজ বুধবার অভিযোগপত্র (চার্জশিট) জমা দিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। চার্জশিটে ২৫ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম জানান, আবরার ফাহাদ হত্যায় এজাহারভুক্ত ১৯ জন এবং এর বাইরে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আরও ছয় জনের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। এজাহারভুক্ত ১৯ জনের মধ্যে ১৬ জন এবং এজাহারবহির্ভূত ছয় জনের মধ্যে পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া পলাতক রয়েছে চার জন। এর মধ্যে তিন জন এজাহারভুক্ত ও একজন এজাহারবহির্ভূত। আবরার হত্যায় সরাসরি অংশে নেয় ১১ জন। বাকি ১৪ জন হত্যাকাণ্ডে বিভিন্ন পর্যায়ে জড়িত ছিল।

Loading...