সুন্দরবনের শুটকি পল্লী থেকে ১০শিশু শ্রমিক উদ্ধার, এক অপহরণকারী আটক

৪:৪২ অপরাহ্ণ | শনিবার, নভেম্বর ১৬, ২০১৯ খুলনা, দেশের খবর

মোংলা প্রতিনিধিঃ সুন্দরবনের শুটকি পল্লী মাঝের কেল্লা এলাকায় অভিযান চালিয়ে জোর করে আটকে রাখা ১০ শিশু শ্রমিককে উদ্ধার করেছে কোস্ট গার্ড। এ সময় অপহরণকারী চক্রের সদস্য লেদু মিয়া নামক একজনকে আটক করা হয়েছে।

কোস্টগার্ড বাহিনী পশ্চিম জোনের গোয়েন্দা কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, গত ১৫ নভেম্বর গভীর রাতে সুন্দরবনের মাঝের কেল্লা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে এক অপহরণকারীকে আটক করা হয়। এসময় অপহরণকারীদের কাছে জিম্মি থাকা ১০ শিশু শ্রমিককে উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরো বলেন, অপহরণকারীরা দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে চা-বাগান ও কারখানায় চাকরী দেওয়ার কথা বলে শিশু শ্রমিকদের নৌকায় করে সুন্দরবনের দুবলার চরের শুটকী পল্লীতে নিয়ে আসে। সেখানে তাদের জোর পূর্বক শুটকী আহরন কাজে নিয়োজিত করা হয়। কাজ করতে না চাইলে তাদের শারিরিক নির্যাতন করা হয়।

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ পরবর্তী সময়ে কোস্টগার্ড সদস্যরা ওই এলাকায় ত্রান বিতরণ করতে গেলে উদ্ধাককৃত এক শিশু শ্রমিক কোস্টগার্ড বাহিনীর সদস্যদের অপহরণের বিষয়টি অবগত করলে ওই মূহুর্তে অভিযান চালিয়ে এক অপহরণকারীকে আটক করা হয়। অভিযানের খবর টের পেয়ে বাকী অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়।

আটক অপহরণকারীর নাম মোঃ নুরুল হক ওরফে লেদু মিয়া (৩৬)। সে চট্রগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার মৃত ফরিদ মিয়ার ছেলে। উদ্ধাকৃত শ্রমিকরা হলেন -(১) রেনু মিয়া, পিতা- মৃত নুর উদ্দিন মিয়া, (২) মোঃ মানিক হোসেন, পিতা- মৃত আক্কাস আলী, (৩) মোঃ হৃদয়, পিতা- মৃত কিতাব আলী, (৪) মোঃ টুটুল মিয়া (১৭), পিতা- আব্দুল মোতালেব, (৫) মোঃ আক্তার হোসেন(১৩) পিতা- মোঃ মনির হোসেন, (৬) মোঃ আল আমিন(১৮) পিতা- মোঃ জসিম, (৭) মোঃ আমির হোসেন, পিতা-মোঃ আব্দুল খালেক,(৮) মোঃ রিমন(১৭), পিতা- মোঃ মোখলেসুর রহমান, (৯) মোঃ আরিফ (১৬) পিতা-মোঃ আব্দুল মালেক, (১০) মোঃ পারভেজ (১৭), পিতা-কচির উদ্দিন। উদ্ধারকৃত শ্রমিকদের বাড়ি চট্রগ্রাম, কিশোরগঞ্জ, হবিগঞ্জ, নোয়াখালী, ময়মনসিংহ ও কুষ্টিয়া জেলায়।

কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের নির্বাহী কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার ইফতেখার হোসেন জানান, বেশ কিছুদিন ধরেই এ অপহরণকারী চক্র সুন্দরবনের দুবলার চরের শুটকী পল্লীতে শিশু শ্রমিকদের এনে তাদের কাছে জিম্মি করে রেখেছে। আটক অপহরনকারী ও উদ্ধাকৃত শ্রমিকদের শরণখোলা থানায় স্থানান্তর করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, কোস্টগার্ড বাহিনীর এখতিয়ারভূক্ত এলাকা সমূহে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রন ও জননিরাপত্তার পাশাপাশি সুন্দরবনে শিশুশ্রম ও শ্রমদাস দমনে কোস্টগার্ড বাহিনীর অভিযান অব্যহত থাকবে।

Loading...