গুজবে মির্জাপুরে ক্রেতাদের হাতে হাতে লবণ

৫:১৬ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৯, ২০১৯ ঢাকা, দেশের খবর

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি- টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে সকাল থেকেই লবণ কেনার উপচেপড়া ভিড় লক্ষ করা গেছে। লবণের গুজবের কারণে যে যতটুকু পারছে সাধ্য মতো কিনে রাখছেন। লাইনে দাঁড়িয়ে ক্রেতাদের লবণ কেনার দৃশ্য দেখতে পাওয়া গেছে।

‘লবণের দাম ৮০-১০০ টাকা কেজি হবে’ এমন গুজবে অধিক দামে লবণ নিয়ে বাড়ি ফিরছেন ক্রেতারা। গুজবের সুযোগটা কাজে লাগিয়ে ফায়দা লুটার অভিযোগ উঠেছে লবণ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে।

সরজমিনে মঙ্গলবার সকালে মির্জাপুর পৌর শহরের কাঁচা বাজারে গিয়ে দেখা গেছে, খোলা লবণ দুইদিন পূর্বেও ১৮-২০ টাকা কেজিতে বিক্রি হলেও দাম বেড়ে তা বিক্রি হচ্ছে ২৫-৩০ টাকা কেজি ধরে। নিমিষেই ফুরিয়ে যাচ্ছে বস্তা বস্তা লবণ।

তবে বেশিরভাগ লবণ খুচরায় বিক্রি হওয়ায় ফলে বিভিন্ন হাট-বাজারে তৈরি হয়েছে লবণের সংকট। সেখানে লবণ না পেয়ে শহরের দিকে ছুটছে মানুষ। কেউ কেউ পূর্ব মূল্যে লবণ বিক্রি করলেও অনেকেই অধিক লাভের আশায় লবণ বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছেন।

মির্জাপুর বাজারের লবণ ব্যবসায়ী লিয়াকত হোসেন বলেন, গত দুইদিন ধরে চট্রগ্রামের আড়ৎদাররা তাদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ধরছে না। খবর নিয়ে জানতে পেরেছি মূলত ট্রাক সংকটের কারনেই বাজারে এই লবণ সংকট তৈরি হয়েছে। সকাল থেকে বিশ বস্তা লবণের অধিকাংশ তিনি খুচরাই বিক্রি করেছেন বলে জানান। তবে ঠিকমতো লবণ আসলে এই সংকট থাকবেনা বলে মনে করেন এই লবণ ব্যবসায়ী।

এ বিষয়ে মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক জানান, বাজারে লবণের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে কেউ যদি ফায়দা লুটতে চায় তবে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Loading...