সংবাদ শিরোনাম
জীবনসঙ্গিনী খুঁজে নিলেন চাহাল | এবার ১২০০ কোটি রুপি ব্যয়ে আকাশছোঁয়া ‘হনুমানের মূর্তি’ তৈরি হচ্ছে ভারতে | লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা বৃদ্ধি, আবারো চীনা সেনা মোতায়েনের দাবি ভারতের | হাজিদের পাথর নিক্ষেপে পদদলিত হয়ে মৃত্যু থামিয়ে ছিলেন এই বাংলাদেশি ইঞ্জিনিয়ার | লামায় ৯ বছরের শিশু ধর্ষিত, ধর্ষক আটক | পিরোজপুরে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের দুই ভুয়া কর্মকর্তা গ্রেপ্তার | বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে তানোরে সেলাই মেশিন বিতরণ | ‘করোনার চেয়েও বড় সংকট হয়তো সামনে আসছে’- বিল গেটস | সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ | কাউখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের চেষ্টা, লম্পট গ্রেফতার |
  • আজ ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘কাশ্মীরের নারীদের ধর্ষণ করা উচিত’- ভারতের সাবেক সেনাপ্রধান

৫:৫৬ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, নভেম্বর ১৯, ২০১৯ আন্তর্জাতিক
sena

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ কাশ্মীর থেকে হিন্দু পণ্ডিতদের তাড়িয়ে দেয়ার প্রতিশোধ হিসেবে সেখানকার নারীদের ধর্ষণ করা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের সাবেক সেনাপ্রধান মেজর জেনারেল এসপি সিনহা। খবর এনডিটিভির। ভারতের একটি টেলিভিশন চ্যানেলের টকশোতে সোমবার তিনি বিতর্কিত এ মন্তব্য করেন।

সাবেক এই সেনাপ্রধান বলেন, ‘৯০-এর দশকে কাশ্মীরে হিন্দু পণ্ডিতরা নির্যাতনের ভয়ে উপত্যকা ছেড়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য হন। তারা জম্মু কিংবা তার আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তার জন্য বসতি স্থাপন করেন। ভূস্বর্গের সঙ্গে কার্যত যোগাযোগ ছিন্ন হয় তাদের। কিন্তু গত ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ায় কাশ্মীরি পণ্ডিতরা উপত্যকায় ফেরার স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছেন।

এই বিষয় নিয়েই সোমবার হিন্দি ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল টিভি৯ এ লাইভ বিতর্ক অনুষ্ঠান চলছিল। অতিথি হিসেবে আরও কয়েকজনের সঙ্গে ছিলেন ভারতের সাবেক সেনাপ্রধান মেজর জেনারেল এসপি সিনহা।

নিজের মতপ্রকাশ করতে গিয়ে এসপি সিনহা বলেন, ‘খুনের বদলা খুন, ধর্ষণের বদলা ধর্ষণ। এভাবেই উপত্যকা থেকে কাশ্মীরি পণ্ডিতদের বিতাড়নের প্রতিশোধ তুলতে হবে।’

এ কথা শোনামাত্র অনুষ্ঠানের সঞ্চালক তাকে সংযত মন্তব্য করার অনুরোধ জানান। আর এতে ক্ষেপে যান অন্য অতিথিরা। কিন্তু নিজের বক্তব্যে অনড় থাকেন সিনহা। তার এ মন্তব্য ঘিরে তুমুল সমালোচনা শুরু হয়েছে গোটা ভারতে।

এর আগে চলতি বছরের শুরুতে বিজেপির নারী শাখার এক নেত্রী মুসলিম নারীদের রাস্তায় ফেলে ধর্ষণের জন্য তার ‘হিন্দু ভাইদের’ আহ্বান জানান। এরপরই তাকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

Skip to toolbar