কমিশন নিয়ে ওষুধ লেখার কারণে ডাক্তারি পেশা নষ্ট হচ্ছে : হাইকোর্ট

১১:৪৮ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, নভেম্বর ২০, ২০১৯ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- কমিশন নিয়ে প্রেসক্রিপশনে বিভিন্ন কোম্পানির ওষুধ লেখার কারণে ডাক্তারি পেশা নষ্ট হচ্ছে বলে জানিয়েছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের বেঞ্চ এ কথা জানান।

এসময়, ভেজাল ওষুধ বিক্রির শাস্তি মৃত্যুদণ্ড বা যাবজ্জীবন হওয়া দরকার বলেও মন্তব্য করেন আদালত। অল্প সাজা দেয়ায় মোবাইল কোর্টের সুফল পাওয়া যাচ্ছে না ফলে ভেজাল ওষুধ বিক্রিও বন্ধ হচ্ছে না বলে জানায় হাইকোর্ট।

ভেজাল-মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ সংরক্ষণ, বাজারজাত ও বিক্রির কারণে যাদের জেল-জরিমানা হয়েছে, তারা যদি আবার একই ধরনের অপরাধে অভিযুক্ত হন, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করতে নির্দেশনা দিয়েছে হাই কোর্ট।

আদালত বলেন, মোবাইল কোর্ট অল্প শাস্তির মধ্য দিয়ে ব্যবসায়ীদের রক্ষা করছে। মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ নিয়ে রিটের পরবর্তী শুনানি ১২ ডিসেম্বর ওই দিন ওষুধ শিল্প মালিক সমিতিকে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলেছেন হাইকোর্ট।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আলতাফ হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার। আর জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী কামরুজ্জামান কচি। বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী শাহ মঞ্জুরুল হক।

Loading...