• আজ ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

যেসব কারণে বিয়েতে ভয় পুরুষের

৩:৫৫ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, নভেম্বর ২২, ২০১৯ লাইফস্টাইল
biye

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ বিয়ে ভীতি বলতে যা বোঝায় তা হচ্ছে বিয়ের নাম শুনলেই ভয় পাওয়া। আর এটা মূলত ছেলেদেরই বেশি থাকে। অনেক কারণে এ ভীতি তৈরি হয় তাদের মধ্যে। একটা ছেলে বিয়ে করা মানেই নিজের অনেক কিছুই বিসর্জন দেয়া থেকে শুরু করে বিশাল দায়িত্ব গ্রহণ করা। যা সবাই নিতে সাহস পায় না।

আসুন জেনে নেয়া যাক সেসব ভয়ের কারণগুলো-

স্বাধীনতা হারানোর ভয় : পুরুষদের মধ্যে একটি সাধারণ ধারণা হলো বিয়ে করা মানেই ব্যক্তি স্বাধীনতা হারানো। নিজের জন্য আলাদা ভাবে সময় দেয়া, যখন যেখানে খুশি যাওয়া, যা ইচ্ছে করা ইত্যাদি স্বাধীনতা হারানোর ভয়ে পুরুষরা বিয়ে করতে পিছু হটেন।

দায়িত্ব নেয়ার ভয় : বিয়ে করা মানেই আরেকটি মানুষদের দায়িত্ব নেয়া। স্ত্রীর দেখাশোনা, খরচ, সঙ্গ দেয়া, সুবিধা অসুবিধার দিকে লক্ষ্য রাখা ইত্যাদি দায়িত্ব নিতে হয় পুরুষকে। আর বিয়ের কিছুদিন পরেই সংসারে আসে নতুন অতিথি। তখন দায়িত্ব আরো বাড়ে। সেই সঙ্গে খরচ এবং চিন্তাও বাড়ে। তাই একসঙ্গে এতো দায়িত্ব নিতে স্বাভাবিক ভাবেই পুরুষরা ভয় পায় এবং বিয়ের প্রতি অনীহা সৃষ্টি হয়।

পরিবারের সঙ্গে স্ত্রীর বোঝাপড়া : বিয়ে করে ঘরে স্ত্রী নিয়ে এলে অনেক পরিবারেই নানান রকম ঝামেলা দেখা যায়। কখনো স্ত্রী অন্যায় আচরণ করে, আবার কখনো নিজের পরিবারের প্রতি অন্যায় আচরণ করে। এ নিয়ে সংসারে শুরু হয় নানা রকম অশান্তি। তার ওপর পরিবারের অন্য সদস্য ও আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে মনোমালিন্য তো হয়েই থাকে অহরহ। আর এসব সমস্যার সমাধান করার দায়িত্বটা এসে পড়ে পুরুষটির ঘাড়েই।

বন্ধু হারানো : দিন ভর বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা, ঘোরাঘুরি, রাত করে ঘরে ফেরা এই তো জীবন! কিন্তু বিয়ের পর জীবনটা কি এমন থাকে? আবার এমনও দেখা যায় যে এক বন্ধু বিয়ে করে সংসার পাতল কী পাতল না, অন্য বন্ধুরা তাকে একটু ভিন্ন দৃষ্টিতে দেখা শুরু করে দেয়। অনেক বন্ধু মহলে বিবাহিত বন্ধুকে নিয়ে নানা রকম হাসি ঠাট্টাও হয় যা অনেকেই সহজ ভাবে নিতে পারেন না। সবমিলিয়ে বিয়ের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন অনেকেই।

স্ত্রীর প্রতারণার ভয় : যেসব পুরুষ সম্পর্কের ক্ষেত্রে কাউকে প্রতারিত হতে দেখেছে কিংবা নিজে প্রেমের সম্পর্কে প্রতারিত হয়েছে তারা বিয়ের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। বরং তাদের মনে বিয়ে সম্পর্কে এক অজানা আতঙ্ক বিরাজ করে। তারা মনে করেন বিয়ের পর স্ত্রী প্রতারণা করবে আর এ ভয়েই বিয়ের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন।

এক নারীতে তুষ্ট হতে না পারা: আজকাল এমন অনেক পুরুষই আছেন, যাদের কাছে বিয়ে মানে হচ্ছে কেবলই একজন নারীর সাথে সারা জীবন কাটিয়ে দেয়া, সংসার বা জীবনে থিতু হওয়া তাদের জন্য জরুরী নয়। এবং এই ব্যাপারটি তারা কিছুতেই মেনে নিতে পারেন না। এ ধরনের পুরুষেরা বহুগামী ও একজন নারীকে ভালোবেসে তার সাথে সংসার যাপন তাদের জন্য অসম্ভব একটি ব্যাপার। এরা মনে করেন বিয়ে মানেই তার বহুগামী জীবনের সকল আনন্দে একটা ছন্দপতন চলে আসবে। ফলে বিয়েকে রীতিমত আতংকের দৃষ্টিতে দেখেন তারা।

বিয়ের খরচ : বিয়ে মানেই অনেক বেশি চাকচিক্য ও বড় পরিসরের আনুষ্ঠানিকতা। দামি কাপড়, প্রচুর স্বর্ণালঙ্কার, অনেক অতিথি, লাখ টাকা দিয়ে হল ভাড়া নেয়া ইত্যাদি ছাড়া যেন সমাজে মুখ রাখাই দায়। এতো এতো খরচ সামলাতে গিয়ে যে কোনো পুরুষকেই হিমশিম খেতে হয়। ক্যারিয়ারের শুরুতে স্বল্প বেতনের চাকরি করে এতো খরচ সামলানো অসম্ভব একটি ব্যাপার। তাই বিয়ের প্রতি ভয় ও অনীহা জন্মে যায়।

মা-বউয়ের ঝামেলা: বিয়ে করে ঘরে বউ নিয়ে এলে অনেক পরিবারেই নানান রকম ঝামেলা দেখা যায়। কখনো বউ অন্যায় আচরণ করে, আবার কখনো নিজের মা বউয়ের প্রতি অন্যায় আচরণ করে। এই নিয়ে সংসারে শুরু হয় নানান রকম অশান্তি। তার উপর পরিবারের অন্য সদস্য ও আত্মীয়স্বজনের সাথে নানান রকম মনোমালিন্য তো হয়েই থাকে অহরহ। আর এসব সমস্যার সমাধান করার দায়িত্বটা এসে পড়ে পুরুষটির ঘাড়েই। তাই এতো ঝামেলার কথা চিন্তা করেও বিয়ে নিয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন অনেকেই।

Loading...